বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভারতের অসুবিধার কথা মাথায় রেখেই ব্রহ্মপুত্রে জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র, দাবি চিনের
ইয়ারলাং জ্যাংবো নদীর নিম্নখাতের উন্নয়ন প্রকল্প প্রাথমিক চিন্তা-ভাবনার পর্যায়ে রয়েছে, দাবি চিনের।
ইয়ারলাং জ্যাংবো নদীর নিম্নখাতের উন্নয়ন প্রকল্প প্রাথমিক চিন্তা-ভাবনার পর্যায়ে রয়েছে, দাবি চিনের।

ভারতের অসুবিধার কথা মাথায় রেখেই ব্রহ্মপুত্রে জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র, দাবি চিনের

  • নদীপ্রবাহের নিম্নভাগে অবস্থিত ভারতের মতো দেশের সমস্ত সুবিধার কথা মাথায় রাখা হবে। 

ইয়ারলাং জ্যাংবো তথা ব্রহ্মপুত্র নদের উপরে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প পরিকল্পনার সময় নদীপ্রবাহের নিম্নভাগে অবস্থিত ভারতের মতো দেশের সমস্ত সুবিধার কথা মাথায় রাখা হবে। বুধবার এই ঘোষণা করেছে চিন সরকার। 

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন তিব্বতে ব্রহ্মপুত্র নদের উপরে চিনের বিশাল জলবিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণের কারণে উত্তর-পূর্ব ভারতে তীব্র জলাভাব দেখা দিতে পারে। প্রশ্নের জবাবে গতকাল নয়া দিল্লিতে চিনা দূতাবাসের মুখপাত্র জি রং বেজিংয়ের বক্তব্য এ ভাবেই ব্যাখ্যা করেন। 

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে ইয়ারলাং জ্যাংবো নদীর নিম্নখাতের উন্নয়ন প্রকল্প প্রাথমিক চিন্তা-ভাবনার পর্যায়ে রয়েছে। তাই নিয়ে এখনই বিশেষ অর্থ খুঁজতে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। সীমান্ত অতিক্রমকারী নদীর উন্নয়ন ও ব্যবহারের ক্ষেত্রে চিন বরাবরই দায়িত্বশীল। তার নীতিতে উন্নয়ন ও সুরক্ষা হাতে হাত ধরে চলে।’

এর আগে গত রবিবার চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, ব্রহ্মপুত্রের উপরে ‘সুপার ড্যাম’ নির্মাণের কাজ শুরু করেছে চিনের পাওয়ার কনস্টাকশন কর্পোরেশন ওরফে পাওয়ারচায়না। গত ১৬ অক্টোবর তিব্বত স্বায়ত্তশাসন অঞ্চল প্রশাসনের সঙ্গে সংস্থার এই বিষয়ে একটি চুক্তি সম্পাদন হয়েছে বলেও জানায় চিনা সংবাদমাধ্যম।

অতীতেও ব্রহ্মপুত্রের উপরে একাধিক ছোট বাঁধ নির্মাণ করেছে বেজিং। নতুন প্রকল্পে উৎপাদিত জলবিদ্যুতের পরিমাণ বিশ্বের বৃহত্তম জলবিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রকল্প, মধ্য চিনের থ্রি গর্জেস ড্যাম-এর চেয়ে প্রায় তিন গুণ হতে পারে বলে জানিয়েছে চিনা সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস। 

 

বন্ধ করুন