বাড়ি > ঘরে বাইরে > গালওয়ানে আমাদের খুব বেশি সৈন্য মারা যায় নি, দাবি চিনের
গালওয়ানের এই এলাকায় সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারতীয় এবং চিনা সেনা (ছবি সৌজন্য এপি)
গালওয়ানের এই এলাকায় সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারতীয় এবং চিনা সেনা (ছবি সৌজন্য এপি)

গালওয়ানে আমাদের খুব বেশি সৈন্য মারা যায় নি, দাবি চিনের

পুরো সংঘর্ষের জন্য ভারতের ওপর চাপালেন চিনা আধিকারিক। 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা প্রাক্তন সেনাপ্রধান ভিকে সিং বলছেন গালওয়ানে কমপক্ষে ৪০ জন চিনা সেনা মারা গিয়েছেন। সেটা আগেই ফেক নিউজ বলে উড়িয়ে দিয়েছে চিন। এবার বিভিন্ন বিদেশি কূটনীতিবিদেদের কাছে বেজিং দাবি করেছে যে তাদের দিকে খুব বেশি প্রাণহানি হয়নি ১৫ জুনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে। 

ভারত জানিয়েছে যে তাদের ২০ জন সৈনিক মারা গিয়েছে। এর মধ্যে ছিলেন বিহার রেজিমেন্টের কম্যান্ডিং অফিসার। অন্যদিকে চিন জানায়নি কজন তাদের মারা গিয়েছে। যদিও তাদেরও কম্যান্ডিং অফিসার সেদিন মারা গিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। 

একদল বিদেশি কূটনীতিবিদের সামনে এদিন চিনের বিদেশমন্ত্রকের  সীমান্ত ও সামুদ্রিক বিষয়ের ডেপুটি জেনারেল হি শিয়ানগি বলেন যে তাদের দিকে তেমন লোকজন মারা যায়নি। যাতে ভাবাবেগ উস্কে না যায়, সেই কারণেই মৃতের সংখ্যা বলা হচ্ছে না বলে জানান তিনি। 

সূত্রের খবর মহিলা কূটনীতিবিদ বলেন যে চিন চায় না মিডিয়া এই মৃতের সংখ্যা নিয়ে বাড়াবাড়ি করুক। এখন দুই পক্ষের প্রয়োজন উত্তেজনা প্রশমন করে স্থিরতা কায়েম করার। লাশের সংখ্যা নিয়ে তুলনা শুরু হলে বৈরিতি আরও বাড়বে, বলে তাঁর যুক্তি। 

এই প্রথমবার চিনের কূটনীতিবিদ স্বীকার করলেন যে তাদের দিকেও মারা গিয়েছেন কেউ কেউ গালওয়ান সংঘর্ষে। এদিনের বৈঠকে ছিল অধিকংশ দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত ছাড়া। আশিয়ান দেশগুলির প্রতিনিধিরাও ছিলেন। ছিল জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিরা। তবে ইউরোপিয়ান দেশগুলি, অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকাকে ডাকা হয়নি এই সংক্ষিপ্ত কুড়ি মিনিটের বৈঠকে। 

তার মধ্যেই সংঘর্ষের জন্য ভারতের ওপর দায় চাপান তিনি। ১৯৯৩ ও ১৯৯৬-এর প্রকৃত সীমান্ত রেখা নিয়ে চুক্তি ভারত ভঙ্গ করেছে বলে দাবি করেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন