বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > খাতা পেনসিল আনতে ভুলে গিয়েছিল ছাত্রী, মেরে পিঠ ফাটিয়ে দিলেন শিক্ষক
ছাত্রীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ সরকারি শিক্ষকের বিরুদ্ধে।
ছাত্রীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ সরকারি শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

খাতা পেনসিল আনতে ভুলে গিয়েছিল ছাত্রী, মেরে পিঠ ফাটিয়ে দিলেন শিক্ষক

  • হিন্দুস্তান টাইমসকে ওই ছাত্রী ফোনে জানিয়েছে রাজকিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রকাশ পাঠক তাকে প্রচণ্ড মেরেছেন। ছাত্রীটি জানিয়েছেন, পাঠক স্যার সবার সামনে আমাকে মেরেছে। আমার একটাই দোষ ছিল আমি খাতা , পেন্সিল নিয়ে যাইনি।

সন্দীপ ভাস্কর

খাতা পেন্সিল আনতে ভুলে গিয়েছিল ক্লাস টুয়ে পড়া সাত বছরের ছাত্রী। আর তার জেরে তাকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। সরকারি স্কুলের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। ২৬শে এপ্রিল বিহারের পশ্চিম চম্পারণের ঘটনা। হিন্দুস্তান টাইমসকে ওই ছাত্রী ফোনে জানিয়েছে রাজকিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রকাশ পাঠক তাকে প্রচণ্ড মেরেছেন। ছাত্রীটি জানিয়েছেন, পাঠক স্যার সবার সামনে আমাকে মেরেছে। আমার একটাই দোষ ছিল আমি খাতা , পেন্সিল নিয়ে যাইনি।এদিকে ওই ছাত্রীর বাবা দিনমজুরের কাজ করেন।

সুফিয়া নামে ওই ছাত্রীর প্রতিবেশী ইরফান সিদ্দিকি জানিয়েছেন,  মেয়েটির পিঠে কালসিটে পড়ে গিয়েছিল। হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়েছে। এদিকে মেয়েটির বাবা জামিল হাসান কানে শুনতে পান না। এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ছাত্রীটির বাবা। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকে স্কুলে আসছেন না ওই শিক্ষক। 

এদিকে অভিযুক্ত শিক্ষকের দাবি, বদনাম করার জন্য় এসব বলা হচ্ছে। তবে অভিযোগ দায়েরের দুদিন পরে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দেখা করেন ছাত্রীর পরিবার। তারা বিষয়টি মিটিয়ে নিতে চাইছেন। তাদের সুর এখন কিছুটা নরম। স্কুলের অধ্যক্ষ রেখা দুবে বলেন,মেয়েটির বাবা সহ অনেকেই বলছেন শিক্ষকের স্বভাব খারাপ কিছু নয়। তিনি স্কুলে ফিরে আসুন এটা চাইছেন অভিভাবকরা। প্রশ্ন উঠছে তবে কি পারিপার্শ্বিক চাপেই পিছু হঠছে পরিবার?

বন্ধ করুন