বাড়ি > ঘরে বাইরে > নেই স্মার্টফোন, অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে অবসাদে আত্মঘাতী অসমের স্কুলছাত্র
অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে হতাশায় আত্মঘাতী হল অসমের দশম শ্রেণির ছাত্র।
অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে হতাশায় আত্মঘাতী হল অসমের দশম শ্রেণির ছাত্র।

নেই স্মার্টফোন, অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে অবসাদে আত্মঘাতী অসমের স্কুলছাত্র

  • বাবাকে জানালেও তিনি অর্থাভাবে ছেলের জন্য স্মার্টফোন জোগাড় করতে পারেননি।

স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে হতাশায় আত্মঘাতী হল অসমের দশম শ্রেণির ছাত্র। মঙ্গলবার চিরাং জেলা থেকে তার দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার পুলিশ জানিয়েছে, অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের সদস্য ওই ছাত্র অনলাইন ক্লাস এবং পরীক্ষায় যোগ দিতে না পেরে মানসিক অবসাদে ভুগছিল। তার বাবার কোনও রোজগার নেই এবং কাজের সন্ধানে তার মা বেঙ্গালুরু গিয়েছেন। বাবাকে জানালেও তিনি ছেলের জন্য স্মার্টফোন জোগাড় করতে পারেননি, জানিয়েছেন চিরাংয়ের পুলিশ সুপার সুধাকর সিং। 

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণের কারণে গত মার্চ মাস থেকে অসমে বন্ধ রয়েছে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পরিবর্তে সরকারি ও বেসরকারি সব স্কুলেই নিয়মিত নেওয়া হচ্ছে অনলাইন ক্লাস ও পরীক্ষা, যাতে স্মার্টফোনের মাধ্যমে অংশগ্রহণ করছে পড়ুয়ারা। 

প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা বলে পুলিশের মনে হয়েচে, এই পরিস্থিতিতে স্মার্টপোনের অভাবে স্কুলের পড় ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে না পেরে তীব্র হতাশাতেই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয় ওই কিশোর। 

এর আগে পশ্চিমবঙ্গের এক দরিদ্র ছাত্রী স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইন ক্লাসে যোগ দিতে না পেরে এ ভাবেই আত্মঘাতী হয়। চলতি মাসের শুরুতে কেরালার মালাপ্পুরমেও দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর বাড়িতে টিভি বা স্মার্টফোন না থাকায় অনলাইন ক্লাস করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে ওই কিশোরী।

(যদি মানসিক অবসাদ বা কোনও সমস্যায় ভোগেন বা কাউকে ভুগতে দেখেন, দয়া করে কাছাকাছি মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের সাহায্য নিন। এই বিষয়ে হেল্পলাইন: Aasra: 022 2754 6669; Sneha India Foundation: +914424640050 ও Sanjivini: 011-24311918)

 

বন্ধ করুন