বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > এসি ঘরে,ইনস্পেক্টরের টেবিলে বসে খাবার খেলেন মুখ্যমন্ত্রীর ধৃত বাবা,বিতর্ক তুঙ্গে
ইনস্পেক্টরের টেবিলে বসে খাবার খেলেন মুখ্যমন্ত্রীর ধৃত বাবা (সংগৃহীত)
ইনস্পেক্টরের টেবিলে বসে খাবার খেলেন মুখ্যমন্ত্রীর ধৃত বাবা (সংগৃহীত)

এসি ঘরে,ইনস্পেক্টরের টেবিলে বসে খাবার খেলেন মুখ্যমন্ত্রীর ধৃত বাবা,বিতর্ক তুঙ্গে

  • প্রশ্ন উঠছে মুখ্য়মন্ত্রীর বাবা বলেই কি থানার ভেতর এত যত্নআত্তি?

খোদ মুখ্যমন্ত্রীর পিতা হওয়া সত্ত্বেও গ্রেফতার করা হয়েছিল নন্দকুমার বাঘেলকে। ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেলের পিতা হওয়া সত্ত্বেও তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে এই ঘটনাকে ঘিরে একেবারে নিরপেক্ষতা ও রাজধর্ম পালনের জন্য মুখ্য়মন্ত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হন অনেকেই। ব্রাহ্মণ্যধর্মের প্রতি বিরূপ মন্তব্য করার অভিযোগেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ৭ই সেপ্টেম্বর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ১৫দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়েছে তাঁকে। গোটা দেশ জুড়ে যখন এনিয়ে শুধুই তারিফ করছেন আমজনতা তখনই সামনে এল এক অন্য ছবি। তবে এই ছবির সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস ডিজিটাল বাংলা। 

 

 সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে একজন বৃদ্ধ চেয়ারে বসে খাচ্ছেন। টেবিলে একটি নেমপ্লেটের একাংশও দেখা যাচ্ছে। তবে ওই বৃদ্ধ মানুষটি আর কেউ নন, গ্রেফতার হওয়া মুখ্যমন্ত্রীর বাবা। থানার ইনসপেক্টরের টেবিলে বসে তিনি খাচ্ছেন এমনটাই দাবি করা হচ্ছে। আর এই ছবি একেবারে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। আর এরপরই সেই তারিফ করার ছবি বদলে গিয়ে এবার বিতর্কের ঝড় উঠেছে।  প্রশ্ন উঠছে মুখ্য়মন্ত্রীর বাবা বলেই কি থানার ভেতর এত যত্নআত্তি?

প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই নন্দকুমার বাঘেল বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। এরপর তাঁর পুত্র তথা মুখ্য়মন্ত্রী বলেন, কেউই আইনের উপরে নন। মুখ্যমন্ত্রীর বাবা হওয়া সত্ত্বেও তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কিন্তু থানায় ইনস্পেক্টরের টেবিলে ধৃতের খাবার খাওয়াকে ঘিরে নানা মন্তব্য করছেন নেটনাগরিকরা। অনেকেই দাবি করছেন মুখ্যমন্ত্রীর বাবা বলেই এত খাতির যত্ন করা হচ্ছে। অন্যদিকে কয়েকজন আবার বলছেন বয়স্ক মানুষদের প্রতি পুলিশের এমন ব্যবহারই হওয়া উচিত।

 

বন্ধ করুন