বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আফগানিস্তানে মহিলা সাংবাদিকদের ইন্টারভিউ দিচ্ছে তালিবান, স্বাধীনতা নাকি নাটক?
ছবি : টুইটার  (Twitter)
ছবি : টুইটার  (Twitter)

আফগানিস্তানে মহিলা সাংবাদিকদের ইন্টারভিউ দিচ্ছে তালিবান, স্বাধীনতা নাকি নাটক?

  • সিএনএন-এর এক মার্কিন মহিলা সাংবাদিককেও কাবুলের রাস্তায় সাক্ষাত্কার দেয় তালিবানরা।

অনুমতি না নিয়ে বের হতে পারবেন না মহিলারা। হিজাব বাধ্যতামূলক। প্রাশ্চাত্য পড়াশোনায় নিষেধাজ্ঞা। জঙ্গিদের বিয়ে করতে বাধ্য করা।

মহিলাদের প্রতি তালিবানদের নীতি বললে এগুলিই সবার আগে মনে পড়ে। কিন্তু, শরিয়ত আইন যেন একটু শিথিল করার নিদর্শন দিল এক তালিবান নেতা। টেলিভিশনে মহিলা সঞ্চালককে সাক্ষাত্কার তালিবানের।

বেহেস্তা আর্ঘান্দ নামের ওই মহিলা সঞ্চালক হিজাব পরেছিলেন। সঙ্গে কালো রঙের ব্লেজার পরেন। আর তাঁকে ইন্টারভিউ দেয় তালিবান নেতা। গোটা বিষয়েই কার্যত অবাক হয়েছেন অনেকেই। সিএনএন-এর এক মার্কিন মহিলা সাংবাদিককেও কাবুলের রাস্তায় সাক্ষাত্কার দেয় তালিবানরা। 

অনেকেই বলছেন, সময়ের সঙ্গে কিছুটা শিথিল হয়েছে তালিবানের শরিয়ত আইন। তাই শিক্ষিকাদের তত্ত্বাবধানে মেয়েদের পড়াশোনা, বা সাংবাদিকতার মতো কাজে এখন আপত্তি নেই তালিবানের।

আবার অনেকের মতে পুরোটাই নাটক। এমন আচরণের মাধ্যমে নিজেদের নরম মনোভাবের পরিচয় দিতে চাইছে তালিবান। কয়েকদিন আগে পর্যন্ত গাড়িতে বোরখা না পরায় মা-বাবার সামনেই হত্যা করা হয় এক যুবতীকে। ১৫ বছরের উর্ধ্বে ও ৪৫-এর নিচে সমস্ত অবিবাহিত ও বিধবা মহিলাদের তালিবান জঙ্গিদের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার নির্দেশ জারি করা হয় গত মাসে। সেখানে এগুলি বিশ্বের কাছে ভালমানুষ সাজার নাটক মাত্র।

বিষয় যা-ই হোক, এই মহিলা সাংবাদিকদের সাহস নিয়ে কোনও দ্বিমত নেই। এ বিষয়ে আপনার কী মত? জানান কমেন্টে।

বন্ধ করুন