বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'BJP-তে স্বস্তিতে থেকেও' বিপ্লবদের তোপ সুদীপের, জিইয়ে রাখলেন TMC যোগের জল্পনা
'BJP-তে স্বস্তিতে থেকেও' বিপ্লবদের তোপ সুদীপের, জিইয়ে রাখলেন TMC যোগের জল্পনা। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
'BJP-তে স্বস্তিতে থেকেও' বিপ্লবদের তোপ সুদীপের, জিইয়ে রাখলেন TMC যোগের জল্পনা। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

'BJP-তে স্বস্তিতে থেকেও' বিপ্লবদের তোপ সুদীপের, জিইয়ে রাখলেন TMC যোগের জল্পনা

  • তাহলে কি অন্য কোনও পরিকল্পনা?

বিপ্লব দেবের সঙ্গে তাঁর 'বিরোধ' নতুন নয়। তারইমধ্যে জল্পনা ছড়িয়েছিল, তাহলে কি সেই 'বিরোধের' জেরে বিধানসভা ভোটের বছরদেড়েক আগে তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরতে চলেছেন? যদিও সেই জল্পনা উড়িয়ে দিলেন ত্রিপুরার বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ। জানিয়ে দিলেন, গেরুয়া শিবিরে তিনি স্বস্তিতে আছেন। তৃণমূলের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ করেননি।

সম্প্রতি তৃণমূলের একাংশের তরফে দাবি করা হচ্ছিল, ঘাসফুল শিবিরের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছেন ত্রিপুরার কয়েকজন বিজেপি বিধায়ক। সেই তালিকায় সুদীপও আছেন বলে জল্পনা ছড়িয়েছিল। রবিবার আগরতলায় কয়েকজন বিজেপি বিধায়কের সঙ্গে বৈঠকের পর অবশ্য যাবতীয় জল্পনা উড়িয়ে সুদীপ বলেন, ‘আমি যেখানে আছি, সেখানে ভালোমতোই স্বস্তিতে আছি। আমি তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করিনি। আমি নিশ্চিত নই যে কেউ ওদের (তৃণমূলের) সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তিনি। ’

যদিও সুদীপের সেই ‘স্বস্তি’ নিয়ে রাজনৈতিক মহলের যথেষ্ট সন্দেহ আছে। তাঁদের বক্তব্য, সুদীপ কয়েকজন বিজেপি বিধায়কের সঙ্গে যে বৈঠক করেছেন, সে বিষয়ে কোনও ধারণা নেই বলে জানিয়েছেন ত্রিপুরা বিজেপির মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, ‘এরকম বৈঠকের আমি কিছু জানি না।’ অথচ রবিবারের বৈঠকের পর কার্যত দলের বিরুদ্ধে ফোঁস করেন সুদীপ। তিনি বলেন, রাজ্য সরকারের কয়েকটি ভুলভ্রান্তি তাঁরা চিহ্নিত করেছেন। যা দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সামনে আনা হবে। ‘যাতে ভুল শুধরে নেওয়া যায় এবং দলের সংগঠন আরও মজবুত করা যায়। আমার মতে, রাজ্য সরকার এবং দল কোনও কর্মীর কথা শুনছে না।’ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পরামর্শ মেনে ত্রিপুরায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির পরিবর্তন করা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন। যে সুদীপ কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর ২০১৭ সালে যোগ দেন বিজেপিতে। দু'বছর পরেই তাঁকে বহিষ্কার করেছিল বিজেপি।

বন্ধ করুন