বাড়ি > ঘরে বাইরে > Common Eligibility Test: অভিন্ন পরীক্ষার মাধ্যমে রাজ্যেও কি নিয়োগ? সিদ্ধান্ত নেবে সংশ্লিষ্ট সরকারগুলি
নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কেন্দ্রের অভিন্ন পরীক্ষার তালিকা ব্যবহার করতে পারবে রাজ্য (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কেন্দ্রের অভিন্ন পরীক্ষার তালিকা ব্যবহার করতে পারবে রাজ্য (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

Common Eligibility Test: অভিন্ন পরীক্ষার মাধ্যমে রাজ্যেও কি নিয়োগ? সিদ্ধান্ত নেবে সংশ্লিষ্ট সরকারগুলি

  • প্রাথমিকভাবে কেন্দ্রের তিনটি নিয়োগ এজেন্সি সেই অভিন্ন পরীক্ষা নেবে। 

শুধু কেন্দ্রীয় সরকার নয়, রাজ্য সরকারও নিয়োগের ক্ষেত্রে ‘কমন এলিজিবিটি লিস্ট’ বা অভিন্ন পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর ব্যবহার করতে পারে। এমনটাই জানালেন প্রধানমন্ত্রীর দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং।

বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পৌরহিত্যে বৈঠকে বসেছিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। সেখানে অভিন্ন পরীক্ষা বা 'কমন এলিজিবিটি টেস্ট' আয়োজনের জন্য ‘ন্যাশনাল রিক্রুটমেন্ট এজেন্সি’ গঠনের সিদ্ধান্তে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। নয়া ব্যবস্থায় রেলওয়ে রিক্রুটমেন্ট বোর্ড (আরআরবি), ইনস্টিটিউট অফ ব্যাঙ্কিং পার্সোনেল সিলেকশন (আইবিপিএস) এবং স্টাফ সিলেকশন কমিশনের (এসএসসি) ‘প্রিলিমিনারি’ পর্যায়ে একটি অভিন্ন পরীক্ষা হবে। তার ভিত্তিতে ‘কমন এলিজিবিটি লিস্ট’ তৈরি হবে। সেই নম্বরের ভিত্তিতে প্রার্থীরা কোনও ওই তিনটি এজেন্সির শূন্যপদে আবেদন করতে পারবেন।

কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, প্রাথমিকভাবে তিনটি এজেন্সি সেই অভিন্ন পরীক্ষা হবে। পরবর্তীকালে সব ২০ টি এজেন্সিকে সেই আওতায় আনা হবে। তবে শুধু কেন্দ্রের সব এজেন্সি নয়, রাজ্য সরকারগুলিও ‘কমন এলিজিবিটি লিস্ট’ ব্যবহার করতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী।

মন্ত্রিসভার বৈঠক পরবর্তী সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘রাজ্য সরকারগুলিও কমন এলিজিবিটি লিস্ট ব্যবহার করতে পারবে। রাজ্য সরকারগুলিকে এই বিষয়ে আমরা পরামর্শ দেব। ওরা যখন বুঝতে পারবে, তখন এটা অনুভব করবে যে এটায় ওদের লাভ আছে। রাজ্য সরকারের রাজস্বও বাঁচবে।’

বন্ধ করুন