বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনায় মৃতের আসল সংখ্যা চেপে যাচ্ছে গুজরাতের বিজেপি সরকার, অভিযোগ চিদম্বরমের
পি চিদম্বরম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
পি চিদম্বরম। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

করোনায় মৃতের আসল সংখ্যা চেপে যাচ্ছে গুজরাতের বিজেপি সরকার, অভিযোগ চিদম্বরমের

  • কেন্দ্রীয় সরকার এবং গুজরাত সরকারের জবাব চাইল কংগ্রেস।

করোনাভাইরাসে মৃতের প্রকৃত সংখ্যা লুকিয়ে যাচ্ছে গুজরাত সরকার। এমনই অভিযোগ তুলে কেন্দ্রীয় সরকার এবং গুজরাত সরকারের জবাব চাইল কংগ্রেস। 

গুজরাতের ৩৩ টি জেলার পরিসংখ্যান (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দু্স্তান টাইমস বাংলা) তুলে ধরে প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী পি চিদম্বরম দাবি করেন, গত বছর মার্চ, এপ্রিল এবং মে মাসে যে সংখ্যক ডেথ সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছিল, তার তুলনায় চলতি বছর ওই একই সময়ের (মার্চ, এপ্রিল এবং মে'র প্রথম ১০ দিন) মধ্যে ঢের বেশি মৃত্যুর সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে। যা কোনওভাবেই স্বাভাবিক হিসেবে চিহ্নিত করা যায় না। করোনাভাইরাসে মৃত্যুর জেরেই ডেথ সার্টিফিকেটের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে অভিযোগ করেন চিদম্বরম। তিনি বলেন, 'দু'বছরের মধ্যে পার্থক্য হল ৬৫,০৮৫। কিন্তু গুজরাত সরকার দাবি করছে যে মাত্র ৪,২১৮ জনের করোনায় মৃত্যু হয়েছে। বাকি যাঁরা মারা গিয়েছেন, তাঁদের মৃত্যুর কারণ কী? কীভাবে রাজ্য সরকার নিজেদেরই জারি করা ডেথ সার্ফিটিকেটের সংখ্যাকে খারিজ করে দিতে পারে?'

শনিবার একটি যৌথ সাংবাদিক বৈঠকেও প্রতিবেদন উল্লেখ করে কংগ্রেস নেতা শক্তিসিং গোহিল ও চিদম্বরম দাবি করেছিলেন, চলতি বছরের ১ মার্চ থেকে ১০ মে'র মধ্যে গুজরাতের ৩৩ টি জেলায় ১২৩,০০০ টি ডেথ সার্টিফিকেট জারি করা হয়েছে। গত বছর একই সময় ৫৮,০০০ টি ডেথ সার্টিফিকেট দিয়েছিল গুজরাত সরকার। চিদম্বরম দাবি করেন, 'দু'বছরের পরিসংখ্যানের মধ্যে এত ফারাক কেন, তার ব্যাখ্যা অবশ্যই দিতে হবে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বলেন, 'আমরা দৃঢ়ভাবে সন্দেহ প্রকাশ করছি যে করোনাভাইরাসের কারণেই বেশি মৃত্যু হয়েছে। রাজ্য সরকার করোনায় মৃতের প্রকৃত সংখ্যা চেপে দিচ্ছে। গঙ্গায় অজ্ঞাতপরিচয় মানুষের দেহ ভেসেল ওঠার ফলে আমাদের সন্দেহে সিলসমোহর পড়েছে। গঙ্গার পার বরাবর ২০০ টি মৃতদেহ বালিতে পোঁতা অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে।' কংগ্রেসের আরও সন্দেহ, কয়েকটি রাজ্য সরকারের সঙ্গে আঁতাত করে করোনায় প্রকৃত মৃতের সংখ্যা চেপে দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার।

বন্ধ করুন