বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পঞ্জাবে ভোটের মুখে প্রবল অস্বস্তিতে কংগ্রেস
(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

পঞ্জাবে ভোটের মুখে প্রবল অস্বস্তিতে কংগ্রেস

আসন্ন বিধানসভা ভোটে এর প্রভাব ইভিএমে কতটা পড়ে এখন সেই দিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

‌পঞ্জাবে ভোটের মুখে অস্বস্তিতে কংগ্রেস। পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরনজিৎ সিং চান্নির ভাগ্নের বাড়িতে এবার হানা দিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডির আধিকারিকরা। অবৈধ বালি খাদান কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে মুখ্যমন্ত্রীর ভাগ্নের বিরুদ্ধে।

ইডি সূত্রে খবর, পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরনজিৎ সিং চান্নির ভাগ্নে ভূপিন্দর সিং হানির বাড়ি ছাড়াও আরও ১০টি জায়গায় হানা দিয়েছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। যাদের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে, তাঁদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক যোগ রয়েছে। এদের সকলের বিরুদ্ধে আর্থিক নয়ছয়ের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন ইডি আধিকারিকরা। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, এবারে পঞ্জাবের নির্বাচনে অবৈধ বালি খাদানের বিষয় রাজনৈতিক চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দল এই বিষয়টি নিয়ে প্রচার করছে। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ইডির বিভিন্ন জায়গায় এভাবে তল্লাশি চালানোর ঘটনা রাজনৈতিকভাবে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

এর আগে পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং যখন কংগ্রেস ছেড়েছিলেন, তখনও তিনি অভিযোগ করেছিলেন, একাধিক কংগ্রেস নেতারা অবৈধ বালি খাদানের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছেন। গত মাসেই তিনি অভিযোগ তুলেছিলেন, তিনি যদি এই কাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের নাম বলতে যান, তাহলে শীর্ষ নেতাদের থেকে বলতে হবে। যে সব বিধায়করা এই কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত, তাঁদের সম্পর্কে তিনি কংগ্রেস হাইকমান্ড সোনিয়া গান্ধীকে বলেছিলেন বলে জানান পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তবে এদিনের ইডির হানা থেকেই প্রমাণ, পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ওই অভিযোগ মোটেই ফাঁকা আওয়াজ ছিল না। ভোটের আগে বিষয়টি এখন কোন দিকে গড়ায়, এখন সেটাই দেখার। তবে বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে নির্বাচনী প্রচারে হইচই শুরু করে দিয়েছে আম আদমি পার্টি। খোদ চান্নির কেন্দ্রে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রচার শুরু হয়েছে। আসন্ন বিধানসভা ভোটে এর প্রভাব ইভিএমে কতটা পড়ে এখন সেই দিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

বন্ধ করুন