বাড়ি > ঘরে বাইরে > টিকা নয়, করোনা সারাতে রোজ রাম ও ডিম পোচের টোটকা কংগ্রেস নেতার
করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত রাম আর ডিমের পোচ খাওয়ার নিদান দিলেন কর্নাটকের কংগ্রেস নেতা রবিচন্দ্রন গাট্টি।
করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত রাম আর ডিমের পোচ খাওয়ার নিদান দিলেন কর্নাটকের কংগ্রেস নেতা রবিচন্দ্রন গাট্টি।

টিকা নয়, করোনা সারাতে রোজ রাম ও ডিম পোচের টোটকা কংগ্রেস নেতার

  • প্রতিদিন ৯০ মিলি রামে এক চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়ো মেশাতে হবে। সঙ্গে জোড়া ডিমের পোচ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন নেতা।

প্রতিষেধক বেরোতে ঢের দেরি। করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে তাই নিয়মিত রাম আর ডিমের পোচ খাওয়ার নিদান দিলেন কর্নাটকের কংগ্রেস নেতা রবিচন্দ্রন গাট্টি। 

সম্প্রতি টুইটারে টাইমস অফ ইন্ডিয়া তাঁর পরামর্শ দানের এক ভিডিয়ো বার্তা পোস্ট করেছে। ভিডিয়োতে ওল্ড মংক রামের বোতল হাতে গাট্টি তাঁর টোটকার সুখ্যাতি করেছেন। যদিও ব্র্যান্ডের নাম গুলিয়ে ফেলে ওল্ড মংকের জায়গায় স্থানীয় ‘খোডেজ’-এর উল্লেখ করেছেন নেতা, তব কী ভাবে নিখুঁত ডিম পোচ রান্না করা যায়, তা নিয়ে সবিস্তারে আলোচনা করেছেন গাট্টি। 

ম্যাঙ্গালুরুর উল্লাল পুরসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস কাউন্সিলরের প্রেস্ক্রিপশন অনুযায়ী, প্রতিদিন ৯০ মিলি রামে এক চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়ো মেশাতে হবে। তার সঙ্গে জোড়া ডিমের পোচ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন নেতা। এই টোটকা প্রয়োগ করলে করোনাভাইরাস অদৃশ্য হবে বলে দাবি করেছেন গাট্টি। 

ভিডিয়োয় তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘চিকিৎসকদের কথা বলতে পারব না। আমি অনেক ওষুধ ব্যবহার করেছি। কিন্তু এই হল আমার কোভিড প্রতিষেধক। আমি রাজনীতিক, কিন্তু এ ক্ষেত্রে সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। এখানে আমি ভারতীয় নাগরিক এবং কোভিড কমিটির সদস্য হিসেবে কথা বলছি।’

গাট্টির দাবি, বেঙ্গালুরু ও মাদিকেরিতে বহু লোকই রাম পান করেন। তবে তিনি জানিয়েছেন, নিজে মদ্যপান করেন না ও মাছ খান না। 

উল্লেখ্য, সমাজকর্মী হিসেবে গাট্টির সুনাম রয়েছে। গত ১৫ বছর ধরে তিনি কংগ্রেস সদস্য। তাঁর সাম্প্রতিক দাবি নিয়ে দল আলোচনায় বসবে বলে জানিয়েছেন ম্যাঙ্গালুরু কংগ্রেস নেতৃত্ব। 

অন্য দিকে, কংগ্রেস নেতার দাবি ঘিরে তোলপাড় হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। জনপ্রতিনিধি হয়ে এমন প্রস্তাব দেওয়ার জন্য গাট্টির কড়া সমালোচনা করেছেন অনেকে। আবার কেউ কেউ টিপ্পিন কেটেছেন, 'করোনা তাড়াতে বিজেপি গোমূত্র পান করতে বলছে আর কংগ্রেস রাম গিলতে বলছে। দেখা যাক এবার কে ভোট পায়!'

বন্ধ করুন