বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Congress on INS Vikrant: ‘১৯৯৯ সাল থেকে... প্রধানমন্ত্রী কি সবাইকে স্বীকৃতি দেবেন?’ INS বিক্রান্ত নিয়ে খোঁচা কংগ্রেসের
আইএনএস বিক্রান্ত  (PTI)

Congress on INS Vikrant: ‘১৯৯৯ সাল থেকে... প্রধানমন্ত্রী কি সবাইকে স্বীকৃতি দেবেন?’ INS বিক্রান্ত নিয়ে খোঁচা কংগ্রেসের

  • ২০ হাজার কোটি টাকা খরচ করে তৈরি করা হয়েছে ৪৫ হাজার টনের এই যুদ্ধজাহাজ। দেশে তৈরি প্রথম বিমানবাহী রণতরী এটি। এই রণতরী নির্মাণ করতে এক দশকেরও বেশি সময় লেগেছে। ৩০টি বিমান ওঠানামা করতে পারবে এই যুদ্ধবিমানে।

ভারতে তৈরি হওয়া প্রথম বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রান্তের পথ চলা আজ শুরু হল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ উদ্বোধন করেন এই রণতরীর। এর আগেই আজ কংগ্রেসের তরফে খোঁচা দেওয়া হল মোদীকে। কংগ্রেসের মুখপাত্র জয়রাম রমেশ এদিন টুইট করে লেখেন, ‘১৯৯৯সাল থেকে সমস্ত সরকারের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তৈরি হয়েছে ভারতের প্রথম দেশীয় বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রান্ত। প্রধানমন্ত্রী কি তা স্বীকার করবেন?’

জয়রাম রমেশ টুইট বার্তায় আরও লেখেন,‘আজকের দিনে আসল আইএনএস বিক্রান্তের কথাও স্মরণ করা উচিত। ১৯৭১সালের যুদ্ধে আমাদের সাহায্য করেছিল এই রণতরী। কৃষ্ণ মেনন যুক্তরাজ্য থেকে এই রণতরী পাওয়ার ক্ষেত্রে মূল ভূমিকা পালন করেছিলেন।’ প্রসঙ্গত,১৯৭১ সালে ইন্দিরা গান্ধীর জমানায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল পুরোনো ‘আইএনএস বিক্রান্ত’। তবে সেটি অবসরে গিয়েছে। এর বদলে এখন নৌবাহিনর হাতে এসেছে ভারতে তৈরি নয়া ‘আইএনএস বিক্রান্ত’।

উল্লেখ্য,২০ হাজার কোটি টাকা খরচ করে তৈরি করা হয়েছে ৪৫ হাজার টনের এই যুদ্ধজাহাজ। দেশে তৈরি প্রথম বিমানবাহী রণতরী এটি। এই রণতরী নির্মাণ করতে এক দশকেরও বেশি সময় লেগেছে। ৩০টি বিমান ওঠানামা করতে পারবে এই যুদ্ধবিমানে। মিগ-২৯কে-র মতো যুদ্ধবিমান ওঠানামা করতে পারবে বিক্রান্তে। কামোভ ৩১ হেলিকপ্টার,এম এইচ ৬১ মাল্টি রোল হেলিকপ্টার এই যুদ্ধ জাহাজ থেকে রওনা হতে পারে।

এদিকেপ্রধানমন্ত্রী এদিন বিক্রান্তের পথ চলার সূচনা করিয়ে বলেন, ‘আইএনএস বিক্রান্তে ব্যবহৃত ইস্পাত ভারতে তৈরি। আইএনএস বিক্রান্তে ব্যবহৃত তারগুলি কোচি থেকে কাশী পর্যন্ত প্রসারিত হতে পারে। আইএনএস বিক্রান্ত দুটি ফুটবল মাঠের মতো বড়। এটি যে বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারে তা পাঁচ হাজার ঘরকে আলোকিত করতে পারে।’

বন্ধ করুন