বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Mallikarjun Kharge: ‘ভুল করে সরকার গঠিত হয়েছে, যে কোনও সময় পড়ে যেতে পারে’ তোপ খাড়গের

Mallikarjun Kharge: ‘ভুল করে সরকার গঠিত হয়েছে, যে কোনও সময় পড়ে যেতে পারে’ তোপ খাড়গের

কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে। (PTI)

একটি সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মল্লিকার্জুন কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘এটি একটি সংখ্যালঘু সরকার। ভুল করে গঠিত হয়েছে। এখানে মোদীজির কোনও ম্যান্ডেট নেই। যে কোনও সময় সরকার পড়ে যেতে পারে।’ একই সঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমরা চাই এটি চলুক। দেশের মঙ্গল হোক।’ 

লোকসভার ফল বেরোনোর পরেই কোন জোট সরকার গঠন করবে তা নিয়ে তুমুল জল্পনা শুরু হয়েছিল। তবে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত রবিবার তৃতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। গত দু’বার কেন্দ্রে যে সরকার ছিল তাতে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছিল বিজেপি। তবে এবার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সরকার গঠনের জন্য জোটের ওপরেই আস্থা রাখতে হয়েছে বিজেপিকে। ফলে গত দুবার মোদীর সরকার থাকলেও এবার প্রকৃত অর্থে সেই সরকার হল জোট সরকার। এরপরেই কেন্দ্রীয় সরকারের স্থায়িত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে বিরোধীরা। এবার এনিয়ে আক্রমণ করলেন কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে। তাঁর কটাক্ষ, যেকোনও সময়ে সরকার পড়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: বিরোধীদের বয়কটের পরেও মোদীর শপথে হাজির খাড়গে, কেন এই সিদ্ধান্ত?

একটি সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মল্লিকার্জুন কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘এটি একটি সংখ্যালঘু সরকার। ভুল করে গঠিত হয়েছে। এখানে মোদীজির কোনও ম্যান্ডেট নেই। যে কোনও সময় সরকার পড়ে যেতে পারে।’ একই সঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমরা চাই এটি চলুক। দেশের মঙ্গল হোক।’ তাঁর বার্তা দেশকে শক্তিশালী করতে গেলে সকলকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। এরপরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তীব্র আক্রমণ করেন খড়গে। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রীর অভ্যেস খারাপ। তিনি কোনকিছু ভালোভাবে চলতে দেন না।’ তবে দেশকে শক্তিশালী করার পক্ষে কংগ্রেস সভাপতি। তিনি জানান, দেশকে শক্তিশালী করার জন্য ইন্ডিয়া জোটের তরফে সব রকমের সাহায্য করা হবে।

কংগ্রেস সভাপতির এই বক্তব্য সামনে আসতেই পালটা খাড়গেকে আক্রমণ করেন জেডিইউ- এর বিধায়ক নিরাজ কুমার। তিনি কংগ্রেস সভাপতিকে পিভি নরসীমা রাও এবং মনমোহন সিংহের অধীনে কংগ্রেস সরকারের কথা মনে করিয়ে পাল্টা আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, ১৯৯১ সালের নির্বাচনে কংগ্রেস ২৪৪ টি এবং ২০০৪ সালের নির্বাচনে ১১৪ টি আসন জিতেছিল কংগ্রেস। সেকথা কি কংগ্রেস সভাপতি ভুলে গিয়েছেন। অন্যদিকে, খাড়গের মন্তব্যকে সমর্থন করেছেন আরজেডি দলের মুখপাত্র এজাজ আহমেদ। তাঁর বক্তব্য, ‘কংগ্রেস সভাপতি ঠিকই। দেশের মানুষ মোদী সরকারের বিরুদ্ধে ছিল। ভোটাররা তাঁকে গ্রহণ করেননি। তবুও তিনি ক্ষমতায় এসেছেন। এটা দুর্ভাগ্য।’

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

দু'দিনে ১৪৫০ টাকা বেড়ে গেল সোনার দাম! আজ হলুদ ধাতুর রেট কোন উচ্চতায় পৌঁছল? Sourav Ganguly: সৌরভকে নেতৃত্বের বড় শিক্ষা দিয়েছিলেন সেহওয়াগ! কী হয়েছিল সে দিন? দিনে একবার হাসতেই হয়, নাহলেই কড়া ব্যবস্থা নিতে পারে এই দেশের সরকার ডিজাইনার সানগ্লাস থেকে ব্যাঙ্গেল, আম্বানিরা অতিথিদের রিটার্ন গিফটে কী কী দিচ্ছিল Champions Trophy 2025: ফের ভারত বনাম পাকিস্তান মহারণ, তবে এবার ICC-র সভায় '...বাকিটা রাজনীতি', এবার শুভেন্দুর 'সবকা সাথ…' বিরোধী মন্তব্যের সমর্থনে তথাগত গোটা শ্রাবণ জুড়ে মহাদেবের আশীর্বাদ পাবে ৩ রাশি, কাছে আসবে না কোনও বিপদ বিয়ের আগে গর্ভবতী অপর্ণা-কন্যা! কঙ্কনাকে গাঁটছড়া বাঁধার কারণ নিয়ে কী বলেন রণবীর বন্দুর উঁচিয়ে 'জমি দখলের' চেষ্টা, অবশেষে পুলিশের জালে IAS পূজা খেদকরের মা ব্রিজে চলছিল ফটোশুট, আচমকা ট্রেন আসতেই ৯০ ফুট গভীর খাদে ঝাঁপ দম্পতির

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.