বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘ধর্ষক’কে প্রার্থী করার প্রতিবাদ জানালে দলীয় কর্মীদের হাতে নিগৃহীত কংগ্রেস নেত্রী
প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে মতবিরোধের জেরে দলীয় কর্মীদের হাতে মার খেলেন উত্তর প্রদেশের কংগ্রেস নেত্রী তারা যাদব। ছবি: এএনআই।
প্রার্থী মনোনয়ন নিয়ে মতবিরোধের জেরে দলীয় কর্মীদের হাতে মার খেলেন উত্তর প্রদেশের কংগ্রেস নেত্রী তারা যাদব। ছবি: এএনআই।

‘ধর্ষক’কে প্রার্থী করার প্রতিবাদ জানালে দলীয় কর্মীদের হাতে নিগৃহীত কংগ্রেস নেত্রী

  • উত্তর প্রদেশের দেওরিয়া বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে মুকুন্দ ভাস্কর মণি ত্রিপাঠিকে মনোনয়ন দেওয়া হলে প্রতিবাদ জানান তারা যাদব।

ধর্ষণে অভিযুক্তকে প্রার্থী করার জন্য প্রতিবাদ জানিয়ে দলীয় কর্মীদের হাতে নিগৃহীত হলেন উত্তর প্রদেশের কংগ্রেস নেত্রী তারা যাদব। 

গত শুক্রবার উত্তর প্রদেশের দেওরিয়া বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে মুকুন্দ ভাস্কর মণি ত্রিপাঠিকে মনোনয়ন দেওয়া হলে প্রতিবাদ জানান তারা যাদব। তাঁর অভিযোগ, ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্তকে টিকিট দেওয়ার ফলে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে। 

দলীয় কর্মিসভায় তিনি বলেন, ‘ একদিকে দলের নেতারা হাথরাস ধর্ষণ ও খুনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদজানাচ্ছেন, অন্য দিকে এক ধর্ষককে প্রার্থী করা হচ্ছে। এই সিদ্ধান্ত সঠিক নয়। এতে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হবে।’

সংবাদমাধ্যম এএনআই-এর প্রকাশকরা ভিডিয়ো ক্লিপে দেখা গিয়েছে, প্রতিবাদী নেত্রীকে ঘিরে ধরে গ্রেস কর্মীরা মারধর করছে। ঘটনার পরে তারা জানান, ‘ধর্ষক মুকুন্দ ভাস্করকে কেন প্রার্থী করা হল সেপ্রশ্ন তুলতেই দলীয় কর্মীরা আমায় মারতে থাকেন। এবার প্রিয়াঙ্কা গান্ধিজি কী ব্যবস্থা নেন, তার জন্য অপেক্ষা করছি।’

উত্তরপ্রদেশের পাঁচ আসনে উপনির্বাচন হবে ৩ নভেম্বর। ১০ নভেম্বর হবে ভোট গণনা। 

এ দিকে দেওরিয়ায় প্রার্থী মনোনয়ন কেন্দ্র করে কংগ্রেস নেত্রীকে মারধরের ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে জাতীয় মহিলা কমিশন। ঘটনায় জড়িত প্রত্যেককে গ্রেফতার করতে পুলিশের কাছে আবেদন জানিয়েছে কমিশন। 

কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা একটি ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে দাবি জানিয়েছেন, নেত্রীর সঙ্গে গুন্ডার মতো আচরণকারী কংগেরেস নেতাদের শাস্তি দিতে হবে।

বন্ধ করুন