বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বছর গড়ালেও স্বমহিমায় করোনা, মোদী সরকারকে একের পর এক তোপ সোনিয়ার
Congress interim chief Sonia Gandhi said on Saturday that since the restrictions were becoming harder and more stringent, it was everyone’s responsibility to support those who face the brunt of reduced economic activity. (PTI PHOTO.) (HT_PRINT)
Congress interim chief Sonia Gandhi said on Saturday that since the restrictions were becoming harder and more stringent, it was everyone’s responsibility to support those who face the brunt of reduced economic activity. (PTI PHOTO.) (HT_PRINT)

বছর গড়ালেও স্বমহিমায় করোনা, মোদী সরকারকে একের পর এক তোপ সোনিয়ার

  • কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে একটি ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নেন সোনিয়া গান্ধী। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও। সেখানেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রকে একের পর এক তো দাগেন তিনি।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এর জেরে জেরবার গোটা দেশ। ২০২০ সালের থেকেও বাজে পরিস্থিতির সম্মুখীন দেশ। এই পরিস্থিতিতে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো সহ অন্যান্য সমস্যা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নীরবতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কংগ্রেস। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সমালোচনা করে কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি সোনিয়া গান্ধী এদিন বলেন, 'এটা খুবই দুঃখজনক যে, একবছর প্রস্তুতির সময় পেয়েও আবারও ভারতে সংক্রমণ ধরা পড়ছে।' আজ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে একটি ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নেন সোনিয়া গান্ধী। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও। সেখানেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রকে একের পর এক তো দাগেন সোনিয়া গান্ধী।

একবছরের বেশি সময় ধরে করোনা মোকাবিলার চেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্র। গত বছর এই সময় দেশ জুড়ে লকডাউন জারি করেছিল কেন্দ্র। তার জেরে স্তব্ধ হয়ে পড়েছিল জনজীবন। তবে লকডাউন উঠতেই আরও প্রবল ভাবে জাঁকিয়ে বসে করোনা। এই আবহে বিরোধীদের অভিযোগ, সরকারের সঠিক পরিকল্পনার অভাবেই এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। একই সঙ্গে দেশে ভ্যাকসিনের ঘাটতি নিয়েও এদিন স্বাস্থ্য মন্ত্রককে তোপ দাগেন সোনিয়া।

এদিকে সংক্রমণ ঠেকাতে করোনার টিকাকরণের বয়সসীমা ২৫ বছর করার দাবি জানিয়েছেন কংগ্রেস নেত্রী। তিনি বলেন, 'সরকার আবারও ভ্যাকসিনেশনের বয়সসীমার বিষয়টিকে পুনর্বিবেচনা করুক। পাশাপাশি যাঁদের অ্যাজমা, ডায়বেটিস, কিডনি ও লিভারের সমস্যা রয়েছে এমন সববয়সীদেরই করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হোক।'

কেন্দ্রের কড়া সমালোচনা করে কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভাপতি বলেন, 'এটা খুবই দুঃখজনক যে, একবছর প্রস্তুতির সময় পেয়েও আবারও ভারতে সংক্রমণ ধরা পড়ছে। মহামারীর মতো জাতীয় সমস্যার বিরুদ্ধে লড়াই সবধরনের রাজনীতির উর্ধ্বে। এই মুহূর্তে যে গতিতে ভারতে করোনার সংক্রমণ ছড়চ্ছে, তা নিয়ে আমরা সবাই চিন্তিত।'

এদিকে করোনার দ্বিতীয় স্রোতের মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকার সমালোচনা করে সোনিয়া বলেন, 'করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি একটি চিঠি লিখেছিলাম। সেই চিঠির কোনও উত্তর আমার কাছে আসেনি। এমনকি কংগ্রেস শাসিত মুখ্যমন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে সময়ে সময়ে সাহায্য় চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন। যার মধ্যে অনেক রাজ্যেই ভ্যাকসিনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এমনকি বেশ কয়েকটি রাজ্যের হাসপাতালে অক্সিজেন ও ভেন্টিলেটর ব্যবস্থাও করা যাচ্ছে না। কিন্তুস এত সব সমস্যার কথা জানালেও, কেন্দ্রের একটি অংশ চুপ করে রয়েছে।' 

 

বন্ধ করুন