বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বিচারপতিদের নিয়ে ভিডিয়ো, ডানপন্থী সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অবমাননার মামলায় সায় AG-র
সুপ্রিম কোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
সুপ্রিম কোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

বিচারপতিদের নিয়ে ভিডিয়ো, ডানপন্থী সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অবমাননার মামলায় সায় AG-র

  • সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার পক্ষে সম্মতি দিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের ঘুষ, পক্ষপাতিত্ব এবং স্বজনপ্রীতির অভিযোগ এনে ইউটিউবে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছিলেন ডানপন্থী সাংবাদিক অজিত ভারতী। সেই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলার পক্ষে সম্মতি দিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল। এই প্রেক্ষিতে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, 'যে বিবৃতি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে তা জনসাধারণের চোখে আদালতের কর্তৃত্বকে কমিয়ে দেবে, এতে কোনও সন্দেহ নেই। এর জেরে ন্যায়বিচার প্রশাসনে বাধা সৃষ্টি করবে।'

বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা ভিডিয়োটি ১.৭ লক্ষ জন দেখেছেন এখনও পর্যন্ত। এর প্রেক্ষিতে একটি চিঠি লেখেন আইনজীবী কৃতিকা সিং। গত ১ জুলাই এই সংক্রান্ত চিঠি অ্যাটর্নি জেনারেলকে পাঠিয়েছিলেন কৃতিকা সিং। তাতে তিনি ভিডিয়োর বিষয়বস্তু তুলে ধরে দাবি করেন যে এই ভিডিয়োটি অবমাননাকর। আইনজীবী কৃতিকা সিংয়ের সেই চিঠির জবাবেই সাংবাদিক অজিত ভারতীর বিরুদ্ধে মামলার পক্ষে সম্মতি প্রকাশ করেন অ্যাটর্নি জেনারেল। উল্লেখ্য, আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করতে অ্যাটর্নি জেনারেলের সম্মতি প্রয়োজন।

বিতর্কিত ইউটিউব ভিডিয়োটিকে আসল ধরে নিয়েই অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, 'তার পোস্ট করা ভিডিয়োর বিষয়বস্তুর উপর ভিত্তি করে অজিত ভারতীর বিরুদ্ধে অবমাননার মামলা শুরু করার জন্য আমার সম্মতি দিতে আমার কোন দ্বিধা নেই।' পাশাপাশি ভিডিয়োতে ভারতীর শব্দ চয়ন নিয়ে প্রশ্ন তুলে নিন্দাও করেন অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল। 

অজিত ভারতী একদা ডানপন্থী নিউজ পোর্টাল অপ ইন্ডিয়ার হিন্দি বিভাগের সম্পাদক ছিলেন। এরপর তিনি নিজে ভিডিয়ো বানানোর কাজ শুরু করেন। বিভিন্ন বিষয় সরকার হিন্দু হিতে কাজ করছে না বলে অভিযোগ করে মাঝে মাঝে তুলোধোনা করতে পিছপা হন না অজিত। 

বন্ধ করুন