বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > যোধা-আকবরের বিয়ে নিয়ে বিতর্কিত কথা বিজেপি বিধায়কের, রাগে ফুঁসছে রাজপুতরা
পাগড়ি বেঁধে দিচ্ছেন রাজস্থানী কন্যা. (ANI Photo) (Dinesh Gupta)
পাগড়ি বেঁধে দিচ্ছেন রাজস্থানী কন্যা. (ANI Photo) (Dinesh Gupta)

যোধা-আকবরের বিয়ে নিয়ে বিতর্কিত কথা বিজেপি বিধায়কের, রাগে ফুঁসছে রাজপুতরা

  • অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভার জাতীয় মিডিয়া ইন চার্জ শ্য়াম সিং তোমার বলেন, ক্ষমা চাইলেই হবে না। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।

মধ্যপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক রামেশ্বর শর্মা। তাঁর একটি মন্তব্যকে ঘিরে একেবারে চরম চাঞ্চল্য মধ্যপ্রদেশ ও প্রতিবেশী রাজস্থানে। আসলে সাগর এলাকায় একটি ফাংশানে বক্তব্য রাখছিলেন ওই বিধায়ক। সেখানে তিনি উল্লেখ করেন, মুঘল সম্রাট আকবর ও তাঁর হিন্দু পত্নী যোধা বাইয়ের মধ্যে কোনও প্রেমের সম্পর্ক ছিল না। তবে কী তাদের সঙ্গে কোনও কফি শপে কিংবা জিমে দেখা হয়েছিল? বিধায়ক বলেন, আসলে কিছু ক্ষমতালোভী মানুষ ক্ষমতা দখলের জন্য তাঁদের মেয়েকে বাজি হিসাবে রেখেছিল। এই মানুষদের সম্পর্কে আমাদের সচেতন থাকতে হবে। তারা আমাদের ধর্মের পক্ষে আতঙ্কের কারন। এরপরই বিধায়কের এই বক্তব্যকে ঘিরে একেবারে হইচই পড়ে গিয়েছে। রাজপুতরা ইতিমধ্যেই এনিয়ে প্রতিবাদে নেমেছে। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ভূপালে বিজেপি অফিসের সামনেও পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে সমালোচনার ঝড় উঠতেই ওই বিধায়ক ক্ষমা চান। তাঁর দাবি , তিনি মুঘলদের সম্পর্কে বলতে গিয়ে ভুল শব্দ চয়ন করেছিলেন। কোনও জাতিগত আবেগে আঘাত দেওয়ার অভিপ্রায় তাঁর ছিল না। রাজপুর কর্নি সেনার প্রধান লোকেন্দ্র সিং কলভি বলেন, এটা দুর্ভাগ্যের যে মানুষ ইতিহাসকে বিকৃত করছে। আমরা এটা বরদাস্ত করব না। অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভার  জাতীয় মিডিয়া ইন চার্জ শ্য়াম সিং তোমার বলেন, ক্ষমা চাইলেই হবে না। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। কংগ্রেসও এনিয়ে সরব হয়েছে। তবে  বিজেপির মিডিয়া ইন চার্জ লোকেন্দ্র প্রসার বলেন, মুঘলরা হিন্দুদের ভাগ করার চেষ্টা করেছিল। এটাই বলতে চেয়েছিলেন বিধায়ক। কিন্তু তিনি ভুল শব্দ প্রয়োগ করেন। 

 

বন্ধ করুন