বাড়ি > ঘরে বাইরে > কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ককে RBI-এর নিয়ন্ত্রণাধীনে আনল মোদী সরকার
আরবিআইয়ের নিয়ন্ত্রণাধীনে সমবায় ব্যাঙ্ক (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
আরবিআইয়ের নিয়ন্ত্রণাধীনে সমবায় ব্যাঙ্ক (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ককে RBI-এর নিয়ন্ত্রণাধীনে আনল মোদী সরকার

আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত রাখার জন্য এই পদক্ষেপ বলে দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর।

দীর্ঘদিন ধরেই দাবিটা উঠছিল। পঞ্জাব অ্যান্ড মহারাষ্ট্র কোঅপারেটিভ (পিএমসি) ব্যাঙ্ক প্রতারণা কাণ্ডের পর তা আরও জোরালো হয়। অবশেষে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার (আরবিআই) নিয়ন্ত্রণাধীনে এল দেশের কমপক্ষে ১৫৪০টি কোঅপারেটিভ বা সমবায় ব্যাঙ্ক।

আরও পড়ুন : New Tax Rate vs Old Tax rate with deductions-চাকরি করুন বা ব্যবসা, কোনটা বাছা উচিত, জেনে নিন

বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে ন্যাশনাল মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর জানান, বর্তমানে বাণিজ্যিক, রাষ্ট্রায়ত্ত ও শিডিউল ব্যাঙ্কগুলি আরবিআইয়ের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখন থেকে সংশোধিত ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন আইন, ২০১৯ অনুযায়ী বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলির নিয়মও কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলিতে প্রয়োজ্য হবে।

আরও পড়ুন : New Tax Rate vs Old Tax Rate with Deductions- চাকুরিজীবীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা

যদিও কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলির প্রশাসনিক ব্যবস্থায় কোনও পরিবর্তন হবে না। তা আগের মতোই কোঅপারেটিভ রেজিস্টার মোতাবেক চলবে। শুধুমাত্র ব্যাঙ্কিং পরিষেবার ক্ষেত্রে আরবিআইয়ের নিয়ম কার্যকর হবে।

আরও পড়ুন : Budget 2020: নয়া করনীতিতেও কোন বিনিয়োগের ওপর ছাড় মিলবে?

জাভড়েকর জানান, দেশের ১৫৪০টি কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কে ৮.৬ কোটি মানুষ অর্থ রেখেছেন। ব্যাঙ্কগুলির কাছে পাঁচ লাখ কোটি টাকা জমা রয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, এক সপ্তাহের মধ্যে আমানতকারীদের সেই অর্থ সুরক্ষিত হবে।

আরও পড়ুন : Budget 2020- কর সংক্রান্ত অর্থমন্ত্রীর আট বড় ঘোষণা

আরবিআইয়ের নিয়ন্ত্রণাধীনে আসার ফলে কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কে অফিসার হওয়ার জন্য নির্দিষ্ট যোগ্যতামান পেরোতে হবে। নির্দিষ্ট শর্তও থাকবে বলে জানান জাভড়েকর। তিনি বলেন, 'সিইও নিয়োগের জন্য অনুমতি দেওয়া হবে। এ নিয়ে গাইডলাইন চালু করবে আরবিআই। কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের নিয়ম অনুসারে অডিট হবে। ঋণ মকুবের ক্ষেত্রেও নিয়ম মেনে চলতে হবে। যদি পরিস্থিতি খারাপ হয়, তাহলে ব্যাঙ্কটিকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার অধিকার থাকবে আরবিআইয়ের।'

আরও পড়ুন : Budget 2020: নয়া করনীতিতে LTA, HRA ও 80C-র বিনিয়োগে ছাড় নেই-পুরো তালিকা

কী কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সেই ব্যাখ্যাও দেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তিনি বলেন, 'দেশের অধিকাংশ কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক ভালোভাবে চলছে। কিন্তু কয়েকটি ব্যাঙ্কের ভুল বিষয় পুরো ক্ষেত্রের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। আমানতকারীদের অর্থ সুরক্ষিত রাখার জন্য এই পদক্ষেপ করা হয়েছে।'

আরও পড়ুন : Budget 2020: বাজেটে পড়ুয়া ও চাকরিপ্রার্থীদের প্রাপ্তি কী, দেখে নিন


বন্ধ করুন