বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ওমিক্রন ত্রাসেও নিম্নমুখী করোনার দৈনিক সংক্রমণ, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত ৩১৫ জন
ওমিক্রন ত্রাসেও নিম্নমুখী করোনার দৈনিক সংক্রমণ (ফাইল ছবি)
ওমিক্রন ত্রাসেও নিম্নমুখী করোনার দৈনিক সংক্রমণ (ফাইল ছবি)

ওমিক্রন ত্রাসেও নিম্নমুখী করোনার দৈনিক সংক্রমণ, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত ৩১৫ জন

  • দেশের মোট ৫৭৮ জন ওমিক্রন আক্রান্ত রোগীর মধ্যে ইতিমধ্যেই ১৫১ জন রোগমুক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা। তবে এরই মাঝে গত ২৪ ঘণ্টায় সামান্য কমল দেশের দৈনিক সংক্রমণ৷ স্বাস্থ্যমন্ত্রকের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৬ হাজার ৫৩১ জন নতুন করে করোনা সংক্রামিত হয়েছেন৷ এর আগের দিন সংখ্যাটা ছিল ৬ হাজার ৯৮৭৷ এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৩১৫ জন৷ আগের দিন মৃতের সংখ্যা ছিল মাত্র ১৬২৷ করোনা আক্রান্ত হয়ে দেশে মোট মৃত্যু ঘটেছে ৪ লক্ষ ৭৯ হাজার ৯৯৭ জনের৷ 

এদিকে গতকাল দেশে মোট ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪২২৷ আজ তা বেড়ে হয়েছে ৫৭৮৷ সবচেয়ে বেশি ওমিক্রন সংক্রমণের খবর মিলেছে দিল্লিতে৷ তারপরেই রয়েছে মহারাষ্ট্র৷ হিমাচলপ্রদেশ ও মধ্যপ্রদেশেও এবার ওমিক্রন থাবা বসিয়েছে। মধ্যপ্রদেশে একদিনেই ৯টি ওমিক্রন কেস শনাক্ত হয়েছে। এদিকে দিল্লিতে একদিনে ৬৩ এবং মহারাষ্ট্রে একদিনে ৩৩টি ওমিক্রন কেস ধরা পড়েছে। এর জেরে সর্বোচ্চ ওমিক্রন সংক্রমণের তালিকায় মহারাষ্ট্রকে পিছনে ফেলল দিল্লি। 

সরকারী তথ্য অনুসারে, দিল্লিতে মোট ওমিক্রন কেসের সংখ্যা ১৪২। দেশে সর্বাধিক সংখ্যক ওমিক্রন সংক্রমণের রিপোর্ট রাজধানীতেই মিলেছে। তারপরেই তালিকায় এখন আছে মহারাষ্ট্র। সেরাজ্যে মোট ওমিক্রন আক্রান্ত ১৪১। তাছাড়া কেরলে ৫৭, গুজরাতে ৪৯, রাজস্থানে ৪৩, তেলেঙ্গানায় ৪১, তামিলনাড়ুতে ৩৪ এবং কর্ণাটকে ৩১টি ওমিক্রন কেস ধরা পড়েছে।

এদিকে দেশের মোট ৫৭৮ জন ওমিক্রন আক্রান্ত রোগীর মধ্যে ইতিমধ্যেই ১৫১ জন রোগমুক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। তাছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ১৪১ জন করোনা রোগী৷ এদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট প্রকাশের সময় পর্যন্ত দেশে ১৪১ কোটি ৭০ লক্ষ সংখ্যক কোভিড ভ্যাকসিনের ডোজ দেওয়া হয়েছে৷

 

 

বন্ধ করুন