বাড়ি > ঘরে বাইরে > Coronavirus latest update in India: করোনায় আক্রান্ত নাকি ফ্লু বা সর্দি-কাশি হয়েছে, বুঝবেন কীভাবে?
জ্বর মানেই করোনা নয় (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য লাইভ হিন্দুস্তান)
জ্বর মানেই করোনা নয় (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য লাইভ হিন্দুস্তান)

Coronavirus latest update in India: করোনায় আক্রান্ত নাকি ফ্লু বা সর্দি-কাশি হয়েছে, বুঝবেন কীভাবে?

কিছু উপসর্গ এক হলেও সাধারণ সর্দি-কাশি, সিজনাল ফ্লুয়ের সঙ্গে করোনাভাইরাসের যথেষ্ট অমিল রয়েছে। দেখে নিন সেই সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য।

করোনাভাইরাসের থাবায় রীতিমতো কাঁপছে বিশ্ব। ভারতেও বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এরইমধ্যে জ্বর-কাশি হলে করোনার ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন অনেকেই। সিজনাল (মরশুমকালীন) ফ্লু ও করোনার উপসর্গে কিছু মিল থাকায় দুশ্চিন্তা আরও বাড়ছে।

আরও পড়ুন : Coronavirus updates in India: করোনা রুখতে একাধিক পদক্ষেপ কেন্দ্রের, জানুন গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা

যদিও বিশেষজ্ঞদের মতে, কিছু উপসর্গ এক হলেও সাধারণ সর্দি-কাশি, সাধারণ ফ্লুয়ের সঙ্গে করোনাভাইরাসের যথেষ্ট অমিল রয়েছে। তাই দুশ্চিন্তা না করে করোনাভাইরাস, সাধারণ ফ্লু ও সাধারণ সর্দি-কাশির উপসর্গ-সহ যাবতীয় তথ্য দেখে নিন-

আরও পড়ুন : কীভাবে করোনার প্রকোপ থেকে রক্ষা পাবেন, দেখে নিন যাবতীয় তথ্য

করোনাভাইরাস :

উপসর্গ - ১) জ্বর ২) শুকনো কাশি ৩) পেশিতে ব্যথা ৪) ক্লান্তি।

কম সাধারণ উপসর্গ - ১) মাথা যন্ত্রণা ২) কাশির সঙ্গে রক্ত ওঠা ৩) ডায়েরিয়া।

ইনকিউবেশন পিরিয়ড (শরীরে ভাইরাস ঢোকা থেকে প্রথম উপসর্গ দেখা দেওয়া পর্যন্ত সময়) - এক থেকে ১৪ দিন। কোনও কোনও ক্ষেত্রে তা ২৪ দিনও হতে পারে।

জটিলতা - করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে পাঁচ শতাংশের অবস্থা জটিল হয় (অ্যাকিউট নিউমোনিয়া, সেপটিক শক, মাল্টি অর্গ্যান ফেলিওর ও রেসপিরেটরি ফেলিওর)।

 গ্রাস করেছে করোনা আতঙ্ক (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
গ্রাস করেছে করোনা আতঙ্ক (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

সুস্থ হওয়ার সময় - সাধারণত দু'সপ্তাহের মধ্যে সেরে ওঠেন আক্রান্ত ব্যক্তি। তবে জটিলতা বেশি হলে সুস্থ হতে ২-৬ সপ্তাহ সময় লাগে।

চিকিৎসা বা প্রতিষেধক - কোনও প্রতিষেধক বা অ্যান্টি-ভাইরাল ওষুধ নেই। শুধুমাত্র উপসর্গের চিকিৎসা করা যায়।

দেখে নিন উপসর্গ (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
দেখে নিন উপসর্গ (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

সিজনাল ফ্লু :

উপসর্গ - ১) জ্বর ২) শুকনো কাশি ৩) পেশিতে ব্যথা ৪) ক্লান্তি ৫) গলা ব্যথা ৫) মাথা যন্ত্রণা ৬) নাক দিয়ে জল পড়া ও বদ্ধ নাক।

কম সাধারণ উপসর্গ - ১) ডায়েরিয়া ২) বমি।

ইনকিউবেশন পিরিয়ড - ১-৪ দিন।

জটিলতা - ১০০ জনের যদি সাধারণ ফ্লু হয়, তাহলে একজনের অবস্থা জটিল হয়।

সুস্থ হওয়ার সময় - সাধারণত সুস্থ হতে এক সপ্তাহ সময় লাগে। তবে জটিল ক্ষেত্রে দু'সপ্তাহ সময় লাগে।

চিকিৎসা বা প্রতিষেধক - বার্ষিক ফ্লু প্রতিষেধক রয়েছে।

আরও পড়ুন : করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে টাকা-পয়সা নাড়াচাড়ায়, সতর্ক করল ‘হু

সাধারণ সর্দি-কাশি :

উপসর্গ - ১) নাক দিয়ে জল পড়া ও বদ্ধ নাক ২) হাঁচি ৩) গলা ব্যথা।

কম সাধারণ উপসর্গ - ১) হালকা জ্বর ২) পেশি বা শরীরে ব্যথা ৩) মাথা যন্ত্রণা ৪) ক্লান্তি।

ইনকিউবেশন পিরিয়ড - ২-৩ দিন।

জটিলতা - অত্যন্ত বিরল।

সুস্থ হওয়ার সময় - অধিকাংশ ক্ষেত্রে এক সপ্তাহ সময় লাগে। বড়জোর তা ১০ দিন হতে পারে।

চিকিৎসা বা প্রতিষেধক - কোনও চিকিৎসা নেই। শুধুমাত্র উপসর্গের চিকিৎসা করা হয়।

আরও পড়ুন : করোনাভাইরাস থেকে শিশুকে কী ভাবে রক্ষা করবেন, জেনে রাখুন জরুরি টিপ্‌স

বিশেষ দ্রষ্টব্য : আপনার যদি নাক দিয়ে জল পড়ে ও নাক বদ্ধ থাকে বা আপনি হাঁচছেন, তাহলে আপনি করোনায় আক্রান্ত হননি, সেই সম্ভাবনা বেশি।

বন্ধ করুন