বাড়ি > ঘরে বাইরে > মহারাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা, সতর্কতা উদ্ধবের
বাড়ছে করোনার প্রকোপ। তা সত্ত্বও সুরক্ষা বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে বাসে ওঠা (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
বাড়ছে করোনার প্রকোপ। তা সত্ত্বও সুরক্ষা বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে বাসে ওঠা (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

মহারাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা, সতর্কতা উদ্ধবের

  • করোনার বাড়বাড়ন্ত রুখতে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ‘আমরা পরিবার-আমার দায়িত্ব’ কর্মসূচি চালু হচ্ছে।

শুরু থেকেই মহারাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের প্রকোপ অব্যাহত। পরিস্থিতির উন্নতি তো দূর অস্ত, শনিবার ২২,০০০-এর বেশি নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। আর আগামিদিনে সেই পরিস্থিতি আরও শোচনীয় হতে পারে। রবিবার এমনই উদ্বেগ প্রকাশ করলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

তিনি জানান, করোনা সংক্রান্ত বিধি ভঙ্গকারীদের জরিমানা ধার্য করতে পারে রাজ্য সরকার। তিনি বলেন, ‘সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে চলার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য রাজ্য সরকার কয়েকটি কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে পারে। এখন যাবতীয় সামাজিক দূরত্বের বিধি কঠোরভাবে মেনে চলার দায়িত্ব মানুষকও ভাগ করে নিতে হবে।’

করোনার বাড়বাড়ন্ত রুখতে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ‘আমরা পরিবার-আমার দায়িত্ব’ কর্মসূচিও চালু হচ্ছে। সেই কর্মসূচির আওতায় রাজ্যের সব পরিবারের কাছে পৌঁছাবেন সরকারি প্রতিনিধি এবং স্বেচ্ছাবেসকরা। তাঁরা প্রত্যেকের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি, করোনা উপসর্গ, জ্বর, কম অক্সিজেনের মাত্রার মতো বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে খোঁজখবর নেবেন। প্রয়োজনে স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদান করা হবে এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হবে। সেই কর্মসূচির আওতায় রাজ্যের প্রতিটি মানুষকে পর্যবেক্ষণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। মাসে দু'বার সেই সমীক্ষা করা হবে এবং তাতে প্রত্যেক মহারাষ্ট্রবাসীকে সক্রিয়ভাবে অংশ নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন উদ্ধব।

পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতিতে মারাঠা সমাজকে কোনও সভা আয়োজন না করার আর্জি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমি মারাঠা সমাজকে কোনও প্রতিবাদ (সভা) আয়োজন না করার আর্জি জানাচ্ছি। কারণ রাজ্য সরকার তাদের সঙ্গে আছে এবং সংরক্ষণের জন্য যাবতীয় চেষ্টা করছে। প্রতিবাদ তখনই যুক্তিসঙ্গত হয়, যখন সরকার আপনাদের কথা শুনছে না।’

উল্লেখ্য, শনিবার মহারাষ্ট্রে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে গিয়েছে। স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মোট সংক্রমিত হয়েছেন ১,০৩৭,৭৬৫ জন। আগের ২৪ ঘণ্টায় ২২,০৮৪ জন নয়া আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। যা দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে রেকর্ড। সবমিলিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭২৮,৫১২ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৯,১১৫ জনের।

বন্ধ করুন