করোনা টেস্ট-ফাইল ছবি  (AFP)
করোনা টেস্ট-ফাইল ছবি (AFP)

বেসরকারি ল্যাবেও বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা হওয়া উচিত, কেন্দ্রকে সুপ্রিম উপদেশ

আপাতত ৪৫০০ টাকা পর্যন্ত লাগছে বেসরকারি ল্যাবে পরীক্ষার জন্য।

সমস্ত নাগরিক যেন বিনা পয়সায় করোনার পরীক্ষা করতে পারেন। সেটা নিশ্চিত করতে কেন্দ্রকে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। বর্তমানে বেসরকারি ল্যাবে করোনাভাইরাস টেস্টের জন্য সাড়ে চার হাজার টাকা লাগে।

বিচারপতি অশোক ভূষণ ও রবীন্দ্র ভাট বলেন যে সরকারের দেখা উচিত এমন একটা উপায় বার করার যেখানে তারা সরাসরি বেসরকারি ল্যাবদের টাকা দিয়ে দিতে পারে যাতে নাগরিকদের পকেট থেকে সেটা না যায়।

বিচারপতি ভূষণ বলেন যে বেসরকারি ল্যাবদের অত টাকা নিতে দেবেন না টেস্টের জন্য। ওদের সরাসরি রিম্বার্সমেন্ট করে দিন। সরকারের তরফ থেকে সুপ্রিম কোর্টে হাজির সলিসিটার জেনারেল বলেন যে তিনি কেন্দ্রের সঙ্গে এই বিষয় শলা-পরামর্শ করে জানাবেন। বর্তমানে করোনা পরীক্ষার জন্য সর্বোচ্চ ৪৫০০ টাকা নিতে পারে বেসরকারি ল্যাবগুলি।

এদিন বিচারপতিরা কেন্দ্রকে বলেন যে স্বাস্থ্যকর্মীরা এই করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আসল যোদ্ধা, তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। যথাযথ পরিমাণে পিপিই যাতে তারা পান, সেটা কেন্দ্রকে নিশ্চিত হবে বলে জানায় সুপ্রিম কোর্ট।

টেস্টিং প্রসঙ্গে আবেদনকারী আদালতে বলেন যে সরকারি হাসপাতালে পরিকাঠামো অপ্রতুল তাই সাধারণ মানুষের করোনা পরীক্ষা করাতে সমস্যা হচ্ছে। এর ফলে তাদের বেসরকারি হাসপাতালে গিয়ে চড়া দামে টেস্ট করাতে হচ্ছে। এটি সংবিধানের ২১ ধারা, বেঁচে থাকার অধিকারের পরিপন্থী বলেই দাবি করেন আবেদনকারী।

সেই মামলার শুনানির সময়েই এই নির্দেশিকা দিল সুপ্রিম কোর্ট যে সবার বিনা পয়সায় টেস্টিং করাতে হবে। আপাতত দেশে করোনা আক্রান্ত পাঁচ হাজার, মারা গিয়েছেন দেড়শোজন।

বন্ধ করুন