বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Coronavirus Update: এপ্রিল পর্যন্ত বুকিং বন্ধ এয়ার ইন্ডিয়ার, মহারাষ্ট্রে লকডাউন বাড়ানোর ইঙ্গিত
লকডাউন বাড়ানো নিয়ে চলছে জল্পনা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএফপি)
লকডাউন বাড়ানো নিয়ে চলছে জল্পনা (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএফপি)

Coronavirus Update: এপ্রিল পর্যন্ত বুকিং বন্ধ এয়ার ইন্ডিয়ার, মহারাষ্ট্রে লকডাউন বাড়ানোর ইঙ্গিত

  • গত বৃহস্পতিবার বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে ধাপে ধাপে লকডাউন শিথিলের পক্ষে সওয়াল করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

লকডাউন কি বাড়তে পারে? বিষয়টি নিয়ে এখনও কেন্দ্রের তরফে কোনও উচ্চবাচ্য করা না হলেও জল্পনায় ইন্ধন জুগিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি সিদ্ধান্ত ও মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মন্তব্য।

আরও পড়ুন : ১০২-এ ১০০ তবলিগি জামাতি, করোনা আক্রান্তে দেশে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এল তামিলনাড়ু

শুক্রবার এয়ার ইন্ডিয়ার তরফে জানানো হয়, আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক উড়ানের বুকিং বন্ধ করা হল। জাতীয় উড়ান সংস্থার তরফে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, 'আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত এয়ার ইন্ডিয়ার বুকিং বন্ধ করা হয়েছে। ১৪ এপ্রিলের পর কী সিদ্ধান্ত হয়, সেজন্য আমরা অপেক্ষা করছি।' তবে ব্যক্তিগত উড়ানের ক্ষেত্রে ১৫ এপ্রিল থেকে বুকিং চালু থাকছে।

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত লাইভ আপডেট

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক উচ্চপদস্থ সরকারি আধিকারিক বলেন, 'এয়ার ইন্ডিয়া একটি বাণিজ্যিক সংস্থা। যদি লকডাউন বাড়ানো হয়, তাহলে বুকিং ও টিকিট বাতিলের বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে। আমরা এখনও জানি না যে লকডাউন ধাপে ধাপে উঠবে নাকি উঠবে না। আপাতত আমরা ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করব। যদি লকডাউন বাড়ানো না হয় তাহলে সেদিনই বুকিং শুরু হতে পারে।'

আরও পড়ুন : COVID-19: এখনও পর্যন্ত ৬৬ হাজার স্যাম্পেল টেস্ট হয়েছে, জানাল ICMR

এদিকে, মহারাষ্ট্রেও আরও কয়েক সপ্তাহ লকডাউন বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন সে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে। তিনি বলেন, 'প্রাথমিক বৃদ্ধির পর আগামী ১৫ এপ্রিলের মধ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমবে বলে আশাবাদী আমরা। আরও কয়েক সপ্তাহ আমাদের লকডাউন করতে হবে। মুম্বইয়ের মতো শহরে (একেবারে) পুরো লকডাউন তুলে নেওয়ার (সম্ভাবনা) কম।'

আরও পড়ুন : মুম্বই এয়ারপোর্টে কর্মরত ১০ সিআইএসএফ রক্ষীর শরীরে মিলল করোনাভাইরাস

দেশের মধ্যে করোনার প্রকোপে সবথেকে বেশি বিপর্যস্ত মহারাষ্ট্রই। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, শুক্রবার রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত মহারাষ্ট্র মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩৫। মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। তোপে বলেন, 'দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণার দু'দিন আগেই আমরা পুরো লকডাউন শুরু করেছিলাম। তার আগেও আমরা শহরাঞ্চল ও বিভিন্ন জায়গায় বিধিনিষেধ আরোপ করেছিলাম। মুম্বইয়ের মতো শহরে (করোনাভাইরাসের) সংক্রমণ আটকানো বড়সড় কাজ। উপযুক্ত বিবেচনার পর লকডাউন শেষ করার সিদ্ধান্ত সাবধনতার সঙ্গে নিতে হবে। ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয়, মুম্বইয়ে লকডাউন বাড়াতে হবে।'

আরও পড়ুন : ভিডিও- করোনা মোকাবিলায় কলকাতা পুলিশের ভরসা অঞ্জনের বেলা বোস!

এরপরই লকডাউন বাড়ার সম্ভাবনা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। গত বৃহস্পতিবার বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্সে ধাপে ধাপে লকডাউন শিথিলের পক্ষে সওয়াল করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যদিও বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে কেন্দ্র। আগে অবশ্য কেন্দ্রের তরফে লকডাউন বাড়ানোর খবর উড়িয়ে দিয়েছিল। কিন্তু পরবর্তী পরিস্থিতিতে জল্পনা নতুন করে বেড়েছে বলে মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

বন্ধ করুন