বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনা টিকা নেওয়া কি বাধ্যতামূলক? রেজিস্ট্রেশনের জন্য কী লাগবে? সব প্রশ্নের উত্তর
অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা টিকা (REUTERS)
অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা টিকা (REUTERS)

করোনা টিকা নেওয়া কি বাধ্যতামূলক? রেজিস্ট্রেশনের জন্য কী লাগবে? সব প্রশ্নের উত্তর

  • কাদের আগে দেওয়া হবে সেটাও জানিয়ে দিয়েছে সরকার। 

করোনা টিকা নিয়ে অনেকের মনেই অনেক প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। সেসবের যাবতীয় উত্তর দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ফলে আতঙ্ক বা দুশ্চিন্তা করার দরকার নেই, নিম্নোক্ত পয়েন্টগুলি পড়লেই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। 

1

প্রাথমিক ভাবে করোনা যোদ্ধা ও স্বাস্থ্যকর্মীরা কোভিড টিকা পাবেন। তারপর ৫০ ঊর্ধ্ব যারা তাদের দেওয়া হবে। এছাড়াও গুরুতর রোগ আছে তেমন রোগীরাও পাবেন, যাদের বয়স ৫০-এর কম। ৫০ ঊর্ধ্ব গোষ্ঠীতে প্রথমে ৬০ বছরের বেশি যারা তাদের টিকাকরণ হবে। তারপর হবে ৫০-৬০ বছর বয়সীদের। 

2

যাদের শরীরে এক বা একের বেশি কোমর্বিডিটি আছে, তাদের অবশ্যই করোনা টিকা নেওয়া উচিত। 

3

দুটি ডোজ নিতে হবে ২৮ দিনের ব্যবধানে। দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ১৪ দিন পর থেকে শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হবে। কিন্তু তখনও মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব রাখা বন্ধ করা চলবে না। 

4

করোনা টিকা নেওয়া বাধ্যতামূলক নয়। তবে সরকার চায় যে সবাই করোনা টিকার পুরো ডোজ যেন পূর্ণ করে যাতে রোগের সংক্রমণ কমে। 

5

করোনা টিকা সম্পূর্ণ রকম নিরাপদ হবে কারণ সমস্ত মাপকাঠিতে পাশ করলে তবেই নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলি ছাড়পত্র দেবে। বিশ্বের অন্য স্থানে যে করোনা টিকা দেওয়া হচ্ছে, গুণমানে সেগুলি ভারতের চেয়ে ভালো হবে না। 

6

যারা বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত বা তেমন সন্দেহ আছে, তাদের টিকাকরণ করতে নিষেধ করেছে সরকার। সুস্থ হয়ে যাওয়ার পর ১৪ দিন কেটে গেলে তারপর টিকা দেওয়া যেতে পারে। যাদের অতীতে করোনা হয়েছিল, তারাও টিকাকরণ করতে পারেন। 

7

একটি বিশেষ সংস্থার টিকা যদি দেন, তাহলে পুরো ডোজ সেটারই শেষ করুন। বিভিন্ন টিকার ডোজ মিলিয়ে নিলে কার্যকর হবে না। 

8

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কাছে নাম নথিভুক্ত করা বাধ্যতামূলক টিকার জন্য। নাম ডেটাবেসে থাকলে তাহলেই আপনাকে যোগাযোগ করা হবে টিকাকরণের জন্য। নির্দিষ্ট স্থান ও কাল জানিয়ে দেওয়া হবে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে এসএমএসের মাধ্যমে। 

9

নাম রেজিস্ট্রেশন করার জন্য লাগবে ড্রাইভিং লাইসেন্স, মনরেগা, স্বাস্থ্য কার্ড, প্যান কার্জ, পাশবুক, পেনশন নথি, সার্ভিস আইডি কার্ড, ভোটার আইডি কার্ড ও জনপ্রতিনিধিদের দেওয়া আইডি কার্ডের কোনও একটি। যে ফোটো আইডি কার্ড দিয়ে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন করবেন, সেটা বাধ্যতামূলক ভাবে দেখাতে হবে টিকাকরণ প্রক্রিয়ার সময়। 

10

ভ্যাকসিন নেওয়ার পর কনফার্মেশন এসএমএস যাবে ব্যক্তির কাছে। একই সঙ্গে যাবে কিউআর কোড ভিত্তিক সার্টিফিকেট। 

11

যে কোনও টিকার ক্ষেত্রে যেমন সাধারণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয় জ্বর, গায়ে ব্যথা ইত্যাদি, এখানেও সেটি হতে পারে। 

বন্ধ করুন