হু হু করে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা (ছবি সৌজন্য এএফপি)
হু হু করে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা (ছবি সৌজন্য এএফপি)

করোনাভাইরাস রুখতে ব্যর্থ, স্বীকার চিনের, SARS-এর থেকেও বেশি মৃত্যু

  • আক্রান্তের সংখ্যাও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত গোটা চিনে আক্রান্তের সংখ্যা ২০,০০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে।

করোনাভাইরাসের বাড়বাড়ন্ত রুখতে নিজেদের ব্যর্থতা স্বীকার করল চিন প্রশাসন। এই মারণ ভাইরাস নিরাময়ের ক্ষেত্রে যে ত্রুটি ও গলদ রয়েছে, তা মেনে নিয়েছে খোদ চিনা প্রেসিডেন্ট শি চিনফিংয়ের নেতৃত্বাধীন উচ্চপর্যায়ের কমিটি।

আরও পড়ুন : করোনাভাইরাসের উপসর্গ কী কী ? অসুখই বা কীভাবে রুখবেন? হেল্পলাইন চালু কেন্দ্রের

সোমবার রাতের দিকে চিনের কমিউনিস্ট পার্টির পলিটব্যুরোর স্ট্যান্ডিং কমিটির তরফে একটি বিবৃতি জারি করা হয়। সেখানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে প্রশাসনের 'ত্রুটি ও গলদ' –এর বিষয়টি মেনে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন : ৪৮ ঘণ্টাতেই করোনা-ভাইরাস 'নিরাময়', দাবি থাইল্যান্ডের চিকিৎসকদের

অনেকদিন ধরেই একাধিক মহল থেকে দাবি করা হচ্ছে, করোনাভাইরাস রোখার ক্ষেত্রে চিন পুরোপুরি ব্যর্থ। পরিস্থিতি পুরোপুরি হাতের বাইরে চলে গিয়েছে। যদিও সেই অভিযোগ মানতে চায়নি চিন। কিন্তু প্রতিদিন যেভাবে মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাতে ব্যর্থতা স্বীকার করা ছাড়া চিন প্রশাসনের কাছে কোনও পথ খোলা ছিল না বলেই মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

আরও পড়ুন : করোনা আতঙ্কের মাঝে ভালোবাসার জয়,মধ্যপ্রদেশে চিনের পাত্রীকে বিয়ে করলেন ভারতীয়

চিনের স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, সোমবার পর্যন্ত করোনোভাইরাসের জেরে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪২৫। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। সার্সের থেকেও করোনাভাইরাস যে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে, তা আগেই স্বীকার করেছিল চিনা প্রশাসন। এবার মৃতের সংখ্যার নিরিখে সার্সকে ছাড়িয়ে গেল করোনাভাইরাস। হংকং ছাড়া চিনের মূল ভূ-খণ্ডে সার্সের জেরে ৩৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

আরও পড়ুন : করোনাভাইরাস আতঙ্ক- চিন থেকে মাল কেনা বন্ধ করলেন শিলিগুড়ির ব্যবসায়ীরা

আক্রান্তের সংখ্যাও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত গোটা চিনে আক্রান্তের সংখ্যা ২০,০০০ ছাড়িয়ে গিয়েছে। আগামীদিনে সেই সংখ্যাটা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা চিনের। সোমবার নতুন করে ৩,০০০ জনের দেহে করোনাভাইরাসের খোঁজ মিলেছে। এর মধ্যে শুধুমাত্র হুবেই প্রদেশেই ২,৩৪৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মাত্র ১০১ জন আক্রান্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

বন্ধ করুন