বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লকডাউন-মাস্ককে বুড়ো আঙুল! বিমান ভাড়া করে বিয়ে সারলেন জুটি, নিমন্ত্রিত ১৬০
ছবি : টুইটার (Twitter)
ছবি : টুইটার (Twitter)

লকডাউন-মাস্ককে বুড়ো আঙুল! বিমান ভাড়া করে বিয়ে সারলেন জুটি, নিমন্ত্রিত ১৬০

ভিডিয়োটি তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের। ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে রীতিমতো ভিড়ে ঠাসা একটি বিমানে হইহই করে বিয়ে হচ্ছে। কারও মুখেই মাস্কের বালাই নেই। নেই কোনও সামাজিক দূরত্বও।

দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণ কমাতে জারি কড়া বিধি-নিষেধ। অনেক সদস্য নিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান করা বারণ। পরতে হবে মাস্কও। কিন্তু এই নিয়মকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখালেন দুই পরিবার। রীতিমতো গোটা বিমান ভাড়া করে মাঝ আকাশে বিয়ের অনুষ্ঠান সারলেন দম্পতি। সঙ্গে থাকলেন প্রায় ১৬০ জন নিমন্ত্রিত।

ভিডিয়োটি তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের। ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে রীতিমতো ভিড়ে ঠাসা একটি বিমানে হইহই করে বিয়ে হচ্ছে। কারও মুখেই মাস্কের বালাই নেই। নেই কোনও সামাজিক দূরত্বও।

জানা গিয়েছে দুই ঘণ্টার জন্য স্পাইসজেটের গোটা বিমানটাই ভাড়া নিয়ে নেন রাকেশ-দক্ষিণার পরিবার। মাদুরাই থেকে বেঙ্গালুরু উড়ে যায় বিমানটি। আর সেই বিমানেই আত্মীয়-পরিজনদের উপস্থিতিতে তাঁরা বিয়ে সারেন।

লকডাউন মাটিতে, আকাশে তো নয়! এমনই পন্থা বের করে বিয়ে করলেন তাঁরা। তাঁদের সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

অনেকেই এমন অভিনব বিয়েতে মজা পেয়েছেন। তবে তার চেয়েও প্রতিবাদে সরব হয়েছেন নেটিজেনরা। করোনা পরিস্থিতিতে কীভাবে বিমানে তাঁরা এত জন পরিজন নিয়ে বিয়ে করছেন তাই নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। যেখানে ৫০ জনের বেশি উপস্থিত থাকার কথা নয়, সেখানে এভাবে এত জমায়েত যে মোটেও ঠিক নয়, সে কথাই বলেছেন অনেকে।

শুধু তাই নয়, মাস্ক না পরার বিষয়টি নিয়েও সরব হয়েছেন কেউ কেউ। অর্থ থাকলেই কেউ আইনের উর্ধ্বে কিনা, তাই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা।

এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে ডিজিসিএ। কীভাবে এতজন জমায়েত করতে ও করোনা বিধি লঙ্ঘণ করতে দেওয়া হল, তাই নিয়ে জবাবদিহি চাওয়া হয়েছে। স্পাইসজেট ও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে ইতিমধ্যেই নোটিশ পাঠানো হয়েছে। করোনা বিধি না মানা প্রত্যেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিমানকর্মীদের ইতিমধ্যেই ডিরস্টার করে দিয়েছে স্পাইসজেট। অর্থাৎ পরবর্তী নির্দেশ দেওয়া অবধি তারা আর কাজে যোগ দিতে পারবেন না। 

বন্ধ করুন