বাড়ি > ঘরে বাইরে > COVID 19 Update- ভারতে করোনা আক্রান্ত ২৮৩, লাগাতার জ্বর হলেই পরীক্ষার নির্দেশ

হুহু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। শনিবার বিকেল সাড়ে চারটের সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে আপাতত ২৮৩জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। এর মধ্য ৩৯জন বিদেশি। করোনাভাইরাল হয়েছিল কিন্তু হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, এমন মানুষের সংখ্যা ২২। অন্যদিকে শনিবার সকালেই কলকাতায় তৃতীয় করোনা রোগীর খোঁজ মিলল। ভারতে ইতিমধ্যেই করোনার জেরে মারা গিয়েছেন চারজন।

দেশের মধ্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। ৬৩ জন করোনায় আক্রান্ত। দ্বিতীয় স্থানে কেরালা। ৪০ জন বর্তমানে করোনায় সংক্রমিত। খাস রাজধানী দিল্লিতে ২৬জন করোনার প্রকোপের সম্মুখীন। লাগোয়া উত্তরপ্রদেশে ২৪জন করোনাভাইরাসে ভুগছেন। সবমিলিয়ে মোট ২২টি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস।

কাদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা হবে-

১. যারা বাইরে থেকে এসেছেন ও করোনার বিভিন্ন লক্ষণ তাদের মধ্যে দেখা যাচ্ছে।

২.কোনও করোনা পজিটিভ কেস হলে তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের, বিশেষত তাদের মধ্যে যদি লক্ষণ দেখা যায়।

৩. যেসব স্বাস্থ্য কর্মীর মধ্যে করোনার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।

৪. যেসব রোগীরা হাসপাতালে ভর্তি জ্বর, কাশি ও নিশ্বাসে কষ্টের উপসর্গ নিয়ে।

৫. করোনা পজিটিভ কেসের ক্ষেত্রে তাঁর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের পাঁচ থেকে চোদ্দো দিনের মধ্যে একবার পরীক্ষা করতে হবে সতর্কতা স্বরূপ।


হাসপাতালদের জন্য কেন্দ্রের নির্দেশিকা এক নজরে দেখে নিন-

এর মধ্য বিশেষ উল্লেখযোগ্য হল সমস্ত নিউমোনিয়া রোগীর তালিকা জানাতে হবে যাতে তাদের পরীক্ষা করা যায়। এমার্জেন্সি নয় তেমন অপারেশন আপাতত মুলতুবি রাখতে বলা হয়েছে। কোনও সন্দেহভাজন করোনা রোগীকে ফেরানো যাবে না। কোনও স্বাস্থ্যকর্মী করোনা আক্রান্ত হলে তাঁকে বিনামূল্যে চিকিত্সা করতে হবে। আইসোলেশন ওয়ার্ডের জন্য অতিরিক্ত বেড বরাদ্দ করে রাখতেও হাসপাতালদের জানিয়েছে কেন্দ্র।

বন্ধ করুন