৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়িতে থাকার অনুমতি পাবেন শিক্ষকরা।
৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়িতে থাকার অনুমতি পাবেন শিক্ষকরা।

Covid-19 crisis: পিছোবে জয়েন্ট, শিক্ষাকর্মীদের ছুটিতে পাঠানোর প্রস্তাব কেন্দ্রে

৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল, কলেজ ও বিশ্বদ্যালয়ের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার অনুমতি দেওয়া উচিত, জানাল কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ দফতর।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোখার জন্য সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে স্কুল, কলেজ ও বিশ্বদ্যালয়ের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার অনুমতি দেওয়া উচিত, জানাল কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ দফতর।

এ দিন সিবিএসই, ইউজিসি, এআইসিটিই-সহ শিক্ষাক্ষেত্রের নিয়ন্ত্রকস সংস্থাগুলির উদ্দেশে লাখা চিঠিতে মানবসম্পদ দফতরের সচিব অমিত খারে জানিয়েছেন, শিক্ষ, গবেষক, ফ্যাকাল্টি মেম্বার ও অশিক্ষক কর্মীদের আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাসভবন থেকে কাজ করার অনুমোদন দেওয়া প্রয়োজন।

চিঠিতে বলা হয়েছে, এর ফলে বাড়িতে থেকে অনলাইন ও অফলাইনে তাঁদের বিষয়বস্তু নিয়ে কাজ করার সুযোগ সময় পাবেন শিক্ষক ও গবেষকরা। সেই সঙ্গে পাঠ্য পরিকল্পনা তৈরি, গবেষণা ও নিবন্ধ লেখার কাজে তাঁরা সময় পাবেন বলেও চিঠিতে জানানো হয়েছে। এমনকি, ‘এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত’ বিষয়ক প্রবন্ধও তাঁরা এই সময় লিখতে পারেন বলে প্রাস্তাব দিয়েছে কেন্দ্রীয় সচিব।

বাড়িতে থাকলেও নির্দিষ্ট সময় অফিসে আছেন বলেই মংনে রাখতে হবে শিক্ষাকর্মীদের। তবে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করার বিস্তারিত তথ্য তাঁদের প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হবে।

৩১ মার্চ পর্যন্ত বহিরাগত বিশেষত বিদেশি আবাসিক পড়ুয়াদের হস্টেলে থাকতে দেওয়ার প্রস্তাবও দিয়েছেন সচিব। তবে তাঁদের সবাইকে প্রয়োজনীয় সতর্কতা মেনে চলতে হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

সেই সঙ্গে মানবসম্পদ দফতরের সচিব জানিয়েছেন, পূর্বনির্ধারিত সিবিএসই পরীক্ষার সঙ্গে জয়েন্ট এন্ট্রান্স (মেন) পরীক্ষার নির্ঘণ্টে সংঘাত বাধার সম্ভাবনা থাকায় জয়েন্ট্রে দিন পিছিয়ে দেওয়া হবে।

বন্ধ করুন