বাড়ি > ঘরে বাইরে > Covid-19 crisis: ফাঁস কালোবাজারি চক্র, মুম্বইয়ে উদ্ধার ২৫ লাখ মাস্ক
লকডাউন ভেঙে রাস্তায় বেরোনোর কারণে অটোরিকশা আরোহীকে জেরা পুলিশের। মুম্বইয়ে বুধবার সকালে। ছবি: রয়টার্স। (REUTERS)
লকডাউন ভেঙে রাস্তায় বেরোনোর কারণে অটোরিকশা আরোহীকে জেরা পুলিশের। মুম্বইয়ে বুধবার সকালে। ছবি: রয়টার্স। (REUTERS)

Covid-19 crisis: ফাঁস কালোবাজারি চক্র, মুম্বইয়ে উদ্ধার ২৫ লাখ মাস্ক

  • উদ্ধার হল ১৫ কোটি টাকা মূল্যের ২৫ লাখ মাস্ক।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের মাঝে মাস্ক নিয়ে কালোবাজারির ফন্দি আঁটা বড় চক্রের হদিশ পেল মুম্বই পুলিশ। উদ্ধার হল ১৫ কোটি টাকা মূল্যের ২৫ লাখ মাস্ক।

সোমবার মুম্বই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে দুষ্কৃতীদের গুদামে হানা দিয়ে লুকিয়ে রাখা প্রচুর মাস্ক উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে চার জনকে। জানা গিয়েছে, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী হিসেবে চিহ্নিত ওই মাস্কগুলি উচ্চমূল্যে দেশের বাইরে বিক্রি করার উদ্দেশে গুদামে মজুত করা হয়েছিল।

মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিংয়ের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। তিনি জানান, ‘বিশ্বস্ত সূত্রে খবর পেয়ে মাস্ক নিয়ে কালোহবাজারির বিষয়ে তদন্ত ও প্রয়োজনে গ্রেফতারের জন্য ক্রাইম ব্রাঞ্চকে নির্দেশ দেন পুলিশ কমিশনার। ধৃতদের গুদাম থেকে ১১ লাখ টাকা মূল্যের বেশ কিছু N-95 মাস্ক এবং তিনটি থ্রি-প্লাই মাস্ক উদ্ধার করে পুলিশ। জেরায় পুলিশ জানতে পারে, ভিওয়ানি এলাকার এক গুদামেও বেশ কিছু মাস্ক মজুত রয়েছে। ওই গুদামে হানা দিয়েও ৪ লাখ টাকা মূল্যের মাস্ক উদ্ধার হয়েছে।’

মুম্বই পুলিশের ডিসিপি আকবর পাঠান জানিয়েছেন, বিভিন্ন মানের মোট ২৫ লাখ উদ্ধার হয়েছে, যার মূল্য ১৫ লাখ টাকা। বেশি লাভের আশায় এই মাস্কগুলি মজুত করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা।

ঘটনায় মোট ৬ কালোবাজারি এবং মিহির প্যাটেল নামে গুদামের স্থানীয় এজেন্টকে পাকড়াও করেছে পুলিশ।

পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, N 95 মাস্কগুলি প্রতিটি ৩০০ টাকা দামে স্থানীয় বাজারে বিক্রি হয় এবং প্রতিটি থ্রি প্লাই মাস্কের বাজারমূল্য ২০ টাকা।

বন্ধ করুন