সংক্রমণের মোকাবিলায় ২০ জন সদস্য নিয়ে লুধিয়ানায় ‘কোভিড কম্যান্ডো’ বাহিনী গড়েছে পঞ্জাব পুলিশ। ছবি: এএনআই।
সংক্রমণের মোকাবিলায় ২০ জন সদস্য নিয়ে লুধিয়ানায় ‘কোভিড কম্যান্ডো’ বাহিনী গড়েছে পঞ্জাব পুলিশ। ছবি: এএনআই।

Covid 19 crisis: পঞ্জাবে সংক্রমণ বৃদ্ধির পিছনে মহারাষ্ট্র ফেরত তীর্থযাত্রীরা, সতর্ক প্রশাসন

  • ৭৯৫ জন তীর্থযাত্রীর মধ্যে ৩৬% সদস্যের নমুনাই করোনা পজিটিভ দেখা গিয়েছে।

মহারাষ্ট্রের নান্ডেড় থেকে ফেরা তীর্থযাত্রীদের সুবাদে পঞ্জাবে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমিতের হার। রাজ্যে অন্তত দুই তৃতীংশ কোভিড রোগী নানডেড ফেরত বলে জানা গিয়েছে।

মহারাষ্ট্রের ওই তীর্থস্থান থেকে মোট ২,২০০ তীর্থযাত্রী পঞ্জাবে ফিরেছেন। তাঁদের ৭৯৫ জনের ৩৬% সদস্যের নমুনাই করোনা পজিটিভ দেখা গিয়েছে। 

এর পরে আরও ২,০০০ শিখ তীর্থযাত্রীর নমুনার রিপোর্ট পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে পঞ্জাব সরকার। তার জেরে সংক্রমিতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

পঞ্জাবে প্রথম দফায় ফিরে আসা ৭০০ তীর্থযাত্রীকে তাঁদের নিজের জেলায় বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। তার আগে তাঁদের প্রাথমিক স্ক্রিনিং সম্পূর্ণ হয়েছে। 

জানা গিয়েছে, অমৃতসর ও লুধিয়ানায় যথাক্রমে ১৭৯ ও ১৭৪ জন তীর্থযাত্রীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এই দুই জেলাতেই সম্প্রতি করোনা সংক্রমণের হার অত্যধিক বেড়়েছে। তার জেরে ৫টি জেলাকে সিল করে দিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। 

অন্য দিকে নান্ডেড় ফেরত তীর্থযাত্রীদের খুঁজে বের করতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে পঞ্জাব সরকার। গত ২৭ এপ্রিল তরন তারনে তিন তীর্থযাত্রী করোনা পজিটিভ প্রমাণিত হওয়ার পরে সতর্ক হয়েছে প্রশাসন। সেই সঙ্গে তাঁদের সংস্পর্শে আসা মানুষেরও খোঁজ করা হচ্ছে। 

তীর্থযাত্রীদের সঙ্গেই ফিরেছিলেন মহারাষ্ট্রের কটন মিলে কর্মরত কয়েক জন পরিযায়ী শ্রমিক। সন্ধান করা হচ্ছে তাঁদেরও।  

 

বন্ধ করুন