বাড়ি > ঘরে বাইরে > একদিনে সংক্রমণে মৃত ৯৭৭, জরুরি ভিত্তিতে ভ্যাক্সিনের অনুমোদন দেওয়া হতে পারে
ভারতে কোভিড পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে টিকার জরুরিভিত্তিক অনুমোদন দেওয়া যেতে পারে।
ভারতে কোভিড পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে টিকার জরুরিভিত্তিক অনুমোদন দেওয়া যেতে পারে।

একদিনে সংক্রমণে মৃত ৯৭৭, জরুরি ভিত্তিতে ভ্যাক্সিনের অনুমোদন দেওয়া হতে পারে

  • একদিনে দেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯,৬৫২ জন, যার জেরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮,৩৬,৯২৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে বিপুল হারে বাড়ল কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসেব অনুযায়ী, একদিনে দেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯,৬৫২ জন, যার জেরে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ায়িছে ২৮,৩৬,৯২৫ জন। 

বর্তমানে ভারতে মোট অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৬,৮৬,৩৯৫ এবং হাসপাতালে চিকিৎসার পরে ছাড়া পেয়েছেন ২০,৯৬,৬৬৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৯৭৭টি, যার জেরে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৩,৮৬৬।

কোভিড অতিমারী থেকে রক্ষা পেতে ভ্যাক্সিন উৎপাদনের দৌড়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে শামিল ভারতও। আপাতত দুটি দেশে উৎপাদিত টিকা- ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন এবং জাইডাস ক্যাডিলা সংস্থার তৈরি ZyCOV-D প্রতিষেধকের দ্বিতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শেষ হয়েছে।

বুধবার ICMR-এর ডিরেক্টর জেনারেল বলরাম ভার্গব সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে জানিয়েছেন, ভারতে তৈরি দু’টি দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি কোভিড ভ্যাক্সিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অগ্রগতি সম্পর্কে সংসদের সদস্যদের জানানো হেয়েছে। ভারত বায়োটেক, ক্যাডিলা ও সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া-র তৈরি ভ্যাক্সিন ট্রায়ালের বিভিন্ন পর্যায়ে রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। 

ভারতের বাজারে কবে কোভিড ভ্যাক্সিন পাওয়া যাবে জানতে চাওয়া হলে এক সাংসদ ভার্গবের কথা উদ্ধৃত করে জানিয়েছেন, সাধারণত চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়ালে ৬ থেকে ৯ মাস পর্যন্ত সময় লাগে। কিন্তু সরকার সিদ্ধান্ত নিলে টিকার জরুরিভিত্তিক অনুমোদন দেওয়া যেতে পারে।

 

বন্ধ করুন