লকডাউন বিধি অমান্য করে রাস্তায় নামা ঠেকাতে জম্মুতে গাড়িচালক ও আরোহীদের বাধা দিচ্ছে পুলিশ। বুধবার পিটিআই-এর ছবি। (PTI)
লকডাউন বিধি অমান্য করে রাস্তায় নামা ঠেকাতে জম্মুতে গাড়িচালক ও আরোহীদের বাধা দিচ্ছে পুলিশ। বুধবার পিটিআই-এর ছবি। (PTI)

COVID-19 Lockdown 2.0 : ছাড় ই-কমার্স সহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে, দেখুন তালিকা

মেয়াদ বাড়ানোোর পরে লকডাউনে বেশ কিছু বাণিজ্যিক ও শিল্পজাত উদ্যোগ ও পরিষেবায় ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় প্রশাসন।

লকডাউনের মেয়াদ ৩ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়ার পরে বেশ কিছু বাণিজ্যিক ও শিল্পজাত উদ্যোগ ও পরিষেবায় ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। বুধবার প্রকাশিত হল তার বিস্তারিত তালিকা।

1

খোলা থাকবে সমস্ত মুদি দোকান এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী, স্বাস্থ্যকর পণ্য, ফল, সবজি, পোলট্রিজাত পণ্য, মাংস, মাছ ও পশুখাদ্য বিপণন কেন্দ্র ও ঠেলাগাড়ি।

2

ই-কমার্স সংস্থাগুলিকে পরিষেবা দেওয়ার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনীয় অনুমতি নিয়ে চলাচল করতে পারবে ই-কমার্স সংস্থার পণ্যবাহী যানবাহন।

3

সংবাদপত্র ও বৈদ্যুতিন মিডিয়া, ডিটিএইচ ও কেবল পরিষেবা স্বাভাবিক ভাবেই কাজ করবে।

4

ইলেকট্রিশিয়ান, প্লাম্বার, ছুতোর মিস্ত্রি, গাড়ির মেকানিক ও আইটি মেকানিকরা কাজ করতে পারবেন। তবে তাঁদের পরিষেবা সম্পূর্ণ লকডাউন বা সিল করা এলাকায় নিষিদ্ধ থাকছে।

5

বন্ধ থাকছে ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা। তবে এ ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে বিদেশি নাগরিকদের ঘরে ফেরা বা নিরাপত্তার কারণের মতো জরুরি প্রয়োজনগুলিকে।

6

চিকিৎসক, নার্স, নিরাপত্তাকর্মী ও ধাত্রী ছাড়া বাস, মেট্রো রেল, রাজ্যের অভ্যন্তরীণ এবং ভিনরাজ্যে যাতায়াতের উপর নিষেধাজ্ঞা আগের মতোই বলবৎ থাকছে।

7

বন্ধ থাকছে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং কোচিং সেন্টার। আশা করা যাচ্ছে, এই সময় এই সমস্ত সংস্থা অনলাইনে পড়াশোনা চালু রাখবে।

8

সমস্ত ক্যাব পরিষেবা, ট্যাক্সি, অটো রিকশা, হাতে টানা রিকশা ও সাইকেল রিকশা চলাচল বন্ধ থাকছে।

9

খোলা থাকছে সমস্ত মেডিক্যাল পরিষেবা, হাসপাতাল, ক্লিনিক, নার্সিংহোম, ওযুধের দোকান, প্যাথলজিকাল ল্যাবরেটরি, ব্লাড ব্যাঙ্ক ইত্যাদি এবং পশু চিকিৎসা কেন্দ্র ও হাসপাতাল।

10

বয়স্ক নাগরিকদের সুবিধায় লকডাউনে হোম কেয়ার রপরিষেবার উপর ছাড় দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে তাঁদের জন্য সরবরাহ ব্যবস্থা ও ডায়াগোনস্টিক পষেবার উপরেও।

11

এই সময় পুরোপুরি খোলা থাকবে ফিশারি ও ডেয়ারি ক্ষেত্র। চালু রাখা হচ্ছে মৎস্যচাষ, মৎস্য উৎপাদন, মৎস্য পরিক্ষাকেন্দ্র, কোল্ড স্টোরেজ, মৎস্যখাদ্য উৎপাদন, ক্যাকেজিং ও বিপণন ব্যবস্থাও। মাছ, চিংড়ি ও অন্যান্য মৎস্যজাত পণ্য চলাচলেও ছাড় দেওয়া হয়েছে।

12

চা ও কফি বাগান, কাজু বাগান এবং রাবার প্ল্যান্টেশনগুলিতে ৫০% কর্মীকে কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে। এই সমস্ত পণ্য বিক্রির ক্ষেত্রেও ৫০% কর্মীকে কাজ করতে দেওয়া হবে। একই ভাবে পশু আশ্রয় কেন্দ্র, গোশালা, দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্য সংগ্রহ ও সরবরাহ, পোলট্রি, মৎস্যচাষ কেন্দ্র, পশুখাদ্য উৎপাদন কেন্দ্রগুলিতেও কাজ করতে দেওয়া হবে পঞ্চাশ শতাংশ কর্মীকে।

13

খোলা রাখা হচ্ছে শিশু, জুভেনাইল, মানসিক সমস্যাযুক্ত মানুষ, মহিলা ও বাউন্ডুলেদের জন্য নির্ধারিত হোমগুলি।

14

ডাকঘর-সহ ডাক পরিষেবা এবং ডাকযোগে আদানপ্রদানযোগ্য পণ্য চলাচলেও ছাড় দিয়েছে সরকার।

বন্ধ করুন