বাড়ি > ঘরে বাইরে > Covid-19: লকডাউনে আটকে পড়া বাঙালি শ্রমিকদের দেখভাল করছে মহারাষ্ট্র, আশ্বস্ত করলেন আদিত্য
আদিত্য ঠাকরে (PTI)
আদিত্য ঠাকরে (PTI)

Covid-19: লকডাউনে আটকে পড়া বাঙালি শ্রমিকদের দেখভাল করছে মহারাষ্ট্র, আশ্বস্ত করলেন আদিত্য

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উদ্বেগ প্রকাশ করে চিঠি লিখেছিলেন।

করোনার জেরে আচমকা লকডাউন ঘোষণায় বিপাকে পড়েছেন ভিন রাজ্যে কর্মরত শ্রমিকরা। কলকারখানা বন্ধ, তাই অনেক জায়গায় মালিকরা শ্রমিকদের বাড়ি চলে যেতে বলছেন। ওদিকে আচমকা লকডাউন হওয়ায় বন্ধ সব যানবাহন। ফাঁপরে পড়ে অনেকেই অনিশ্চিতের পথে হাঁটা দিয়েছেন নিজের ভিটের উদ্দেশে। বাংলা থেকেও অনেক শ্রমিক বিভিন্ন রাজ্যে যান। তাদের যেন খেয়াল রাখা হয়, সেই জন্য ১৮ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।সেই চিঠির উত্তরে মহারাষ্ট্র সরকার থেকে জানান হয়েছে যে তারা বাঙালি শ্রমিকদের দেখভাল করছেন।

মন্ত্রী ও শিবসেনা নেতা আদিত্য ঠাকরে জানিয়েছেন যে তাঁরা মমতার চিঠি পেয়েছেন। তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন তাঁকে ফোনও করেছিলেন বলে জানান আদিত্য। উদ্ধব পুত্র টুইটারে জানিয়েছেন যে এই শ্রমিকদের চিহ্নিত করে তাঁদের দেখভাল করছে মহারাষ্ট্র সরকার, কিন্তু আপাতত রাজ্যের বর্ডার যেহেতু বন্ধ, তাই তাদের বাংলায় পাঠানো হবে না।

সামগ্রিক ভাবে যেভাবে ভিন রাজ্যের শ্রমিকরা আটকে পড়েছেন বিভিন্ন রাজ্যে, সেই নিয়েও সব রাজ্যকে একযোগে কাজ করতে আর্জি জানান আদিত্য।


আদিত্য বলেন যে উদ্ধব ঠাকরে নির্দেশ দিয়েছেন যে সমস্ত জেলার কালেক্টররা যেন খুঁজে বার করেন অন্য রাজ্য থেকে আসা বাসিন্দাদের, যারা লকডাউনের জন্য রাজ্যে আটকে গিয়েছেন। একইভাবে মহারাষ্ট্রের যারা অন্য রাজ্যে আটকে গিয়েছেন, তাদের দেখভালের জন্য সংশ্লিষ্ট মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

আদিত্য বলেন দেশের ফেডারালিজিমের একটি বড় পরীক্ষা এটি। সেখানে সব মুখ্যমন্ত্রী বর্ডার বন্ধ করলেও নিজেদের মন খুলে সবাইকে সাহায্য করছেন, যেটি ইতিবাচক। করোনাভাইরাসের জেরে দেশে আক্রান্ত ৭২৪, মারা গিয়েছেন ১৭।

বন্ধ করুন