দিল্লিতে বন্ধ ২৩টি হটস্পট (PTI)
দিল্লিতে বন্ধ ২৩টি হটস্পট (PTI)

Covid-19: দিল্লিতে দুই ডাক্তারের শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার প্রৌঢ়

বুধবার রাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিয়ে শুরু হয়েছিল বচসা।

দিল্লির সরকারি হাসপাতালে কর্মরত দুই চিকিত্সকের সঙ্গে অভদ্র ব্যবহার, হুমকি, হেনস্থা ও শ্লীলতাহানির দায় গ্রেফতার হয়েছেন ৪২ বছরের এক ব্যক্তি। পেশায় ইনটিরিয়ার ডিজাইনার এই ব্যক্তির সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিয়ে শুরু হয়েছিল বচসা।

দক্ষিণ দিল্লির গুলমোহর এনক্লেভের একটি ফলের দোকানে প্রাথমিক ভাবে বচসা শুরু হয়। অভিযুক্তের আশঙ্কা ছিল যে চিকিত্সকদের থেকে তার করোনা হতে পারে। এরই জেরে রীতিমত গালাগালি ও পরে নিগ্রহ করে বসে সে। এর জেরেই মামলা দায়ের হয়েছে হৌজ খাস থানায়।

পুলিশ জানিয়েছে যে পেশায় ডাক্তার দুই বোন ফল কিনতে গিয়েছিলেন। সেখানেই অভিযুক্তের সঙ্গে দেখা হয়। তাদের দূরে দাঁড়াতে বলে ওই ব্যক্তি এবং সেই নিয়ে ঝগড় লাগে। পরে এই ডাক্তারদের চড় মারে প্রৌঢ় বলে অভিযোগ। এরপরে তাদের সঙ্গে শ্লীলতাহানি করে লোকটি যখন ওই দুই বোন ঘটনাস্থল থেকে চলে যেতে চাইছিলেন।

দুই অভিযোগকারিনী পুলিশের দ্বারস্থ হন ও তাদের শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। তারপর তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় ওই ব্যক্তিকে। এদিন দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন বলেন যে কেউ স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধে বৈষম্য করলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে কোথাও অসুবিধায় পড়লেই, তখনই যোগাযোগ করা উচিত স্বাস্থ্যকর্মীদের। পুলিশ পৌঁছে যাবে। সারা দেশে বিভিন্ন স্থান থেকেই ডাক্তার ও নার্সদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার, মারধোর ইত্যাদির অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।






বন্ধ করুন