করোনাভাইরাস রুখতে এসি রেলকামরার পর্দা ও যাত্রীদের জন্য কম্বল সরবরাহ বন্ধ করল রেল।
করোনাভাইরাস রুখতে এসি রেলকামরার পর্দা ও যাত্রীদের জন্য কম্বল সরবরাহ বন্ধ করল রেল।

Covid-19 crisis: রেলের কোচ থেকে পর্দা-কম্বল বাদ, যাত্রীদের কম্বল নেওয়ার পরামর্শ

Covid-19 সংক্রমণ রোধ করার উদ্দেশে পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত রেল কামরা থেকে পর্দা ও কম্বল অবিলম্বে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে।

নোভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে বাতানুকূল কামরা থেকে এবার পর্দা ও কম্বল বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় রেল।

সম্প্রতি পশ্চিম রেলওয়ের জনসংযোগ আধিকারিক এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘বাতানুকূল কামরার পর্দা ও কম্বল রোজ কাচা হয় না। Covid-19 সংক্রমণ রোধ করার উদ্দেশে পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত রেল কামরা থেকে পর্দা ও কম্বল অবিলম্বে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে।’

একই সঙ্গে যাত্রীদের নিজস্ব কম্বল সঙ্গে রাখার পরামর্শ দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া সঙ্গে অতিরিক্ত চাদর রাখতেও বলা হয়েছে যাত্রীদের।

অন্য দিকে মধ্য রেলের তরফে জানানো হয়েছে, কামরার দরজার হাতল, ল্যাচ, অন্যান্য হাতল, সিট গার্ড, খাবারের প্লেট রাখার তাক, জানলার কাচ, জানলার গ্রিল, বোতল রাখার হোল্ডার, উপরের বার্থে ওঠার সিঁড়ি ও হাতলের মতো অংশ যা যাত্রীরা নিয়মিত স্পর্শ করেন, সেগুলি রোজ কীটনাশক দিয়ে পরিষ্কার করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে পরিষ্কার করা হচ্ছে বিদ্যুতের সুইচ, চার্জ পয়েন্ট ও ডাস্টবিনের মতো সামগ্রী।

রেলের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে, প্রতিদিন কামরার শৌচাগারের ভিতরে গরম জলের স্প্রে দিয়ে ধুয়ে ফেলা হচ্ছে।

পর্দার সহ্গে সঙ্গে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে তেজস এক্সপ্রেসের মতো ট্রেনের কামরায় ব্যবহৃত রোল ডাউন কাপড়ের রোলও সরিয়ে ফেলা হবে। শুধু তাই নয়, এ যাবত ব্যবহার করা কম্বলগুলি ভিন্ন লিনেন ব্যাগে ভরে সরিয়ে ফেলার নির্দেশও কর্মীদের উদ্দেশে জারি করেছে রেল।

ট্রেনে পরিষেবা দানকারী কর্মীদের নিয়মিত হাত ধোয়ার উপরে জোর দেওয়া হয়েছে এবং সেই জন্য তাঁদের তরল সাবান ও ন্যাপকিন রোল দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন