বিদেশ ফেরত যাত্রীদের উপরে সঠিক নজরদারির অভাব রয়েছে, অভিযোগ কেন্দ্রের। ছবি: এএফপি। (AFP)
বিদেশ ফেরত যাত্রীদের উপরে সঠিক নজরদারির অভাব রয়েছে, অভিযোগ কেন্দ্রের। ছবি: এএফপি। (AFP)

Covid-19 update: বিদেশ ফেরত যাত্রীদের উপরে নজরদারিতে ফাঁক, উদ্বিগ্ন কেন্দ্র

  • বিদেশ ফেরত যাত্রীদের উপরে নজর রাখা না হলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে প্রশাসনের যাবতীয় উদ্যোগ নিষ্ফল প্রমাণিত হবে।

করোনা নজরদারিতে বড়সড় ফাঁক থেকে যাচ্ছে। রাজ্যের মুখ্যসচিবদের লেখা চিঠিতে এই সতর্কবার্তা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিব রাজীব গৌবা।

ক্যাবিনেট সচিবের দাবি, আন্তর্জাতিক উড়ান বাতিল করার আগে যে সমস্ত যাত্রীরা বিদেশ থেকে এসে পৌঁছেছেন, তাদের সকলের উপরে নজর রাখা না হলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে প্রশাসনের যাবতীয় উদ্যোগ নিষ্ফল প্রমাণিত হবে।

দেশের প্রবীণতম আমলা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন, ‘ভারতে এ পর্যন্ত যাঁরা করোনাভাইরাস পজিটিভ প্রমাণিত হয়েছেন, তাঁদের অধিকাংশেরই বিদেশভ্রমণের অভিজ্ঞতা রয়েছে বলে দেখা গিয়েছে। এই কারণে নজরদারিতে ফাঁক থাকলে সংক্রমণ রোধের পিছনে যাবতীয় পদক্ষেপ ব্যর্থ হবে।’

তবে গৌবার চিঠিতে নজরদারির আওতায় থাকা বিদেশফেরৎ যাত্রীদের সংখ্যা উল্লেখ করা হয়নি। তবে এটুকু বলা হয়েছে যে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অভিবাসন ব্যুরো প্রায় ১৫ লাখের বেশি যাত্রী সম্পর্কে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির কাছে তথ্য পাঠিয়েছে।

ওই সমস্ত যাত্রীকে কড়া নজরদারিতে রাখা প্রয়োজন বলে চিঠিতে জানিয়েছেন ক্যাবিনেট সচিব।

প্রসঙ্গত, এর আগে একাধিক বার রাজ্য প্রশাসনকে বিদেশ ফেরত যাত্রীদের উপরে নজর রাখতে পরামর্শ দেয় কেন্দ্র। কিন্তু তাতে বিশেষ সাড়া না পাওয়ায় সমস্যায় পড়েন ক্যাবিনেট সচিব।

অন্য দিকে রাজ্য প্রশাসনের তরফে অভিযোগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অভিবাসন ব্যুরো থেকে পাঠানো তালিকা অনেক সময়ই অসম্পূর্ণ থাকায় নজরদারির বিষয়ে অসুবিধা দেখা দিয়েছে।

বন্ধ করুন