ফাঁকা ধর্মতলা চত্বর (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
ফাঁকা ধর্মতলা চত্বর (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

COVID-19 Updates: কোন শর্তে দেশের কিছু অঞ্চলে ২০ এপ্রিলের পর শিথিল হবে লকডাউন?

  • তবে লকডাউন শিথিল করলেই সব বিধিনিষেধ ফুৎকারে উড়িয়ে দেওয়ার প্রবণতা রুখতে কড়া হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

লকডাউনের মেয়াদ আরও ১৯ দিন বাড়ানো হয়েছে। সেই সময় লকডাউন পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে আগামী ৩ মে'র আগেই লকডাউন শিথিলের পথে হাঁটতে পারে কেন্দ্র। সেজন্য অবশ্য কয়েকটি শর্ত পূরণ করতে হবে। তবেই মিলবে ছাড়। এমনটাই জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন : ঘরের দরজা খুললেই নোটের তাড়া, সঙ্গের চিরকুটে করোনার হুমকি!

মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশে ভাষণে মোদী জানান, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় আগামী এক সপ্তাহ অত্যন্ত কঠোরভাবে লকডাউন মেনে চলা হবে। ওই সময়ের মধ্যে দেশের প্রতিটি কোণায় কড়া নজরদারি চালানো হবে। মোদী বলেন, '২০ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের প্রতিটি এলাকা, থানা, জেলা ও রাজ্যে কঠোর নজরদারি চালানো হবে।'

আরও পড়ুন : মুম্বই থেকে হেঁটে বারাণসী পৌঁছলেও যুবককে বাড়িতে ঢুকতে দিল না পরিবার

সেই সময়ের মধ্যে প্রতিটি এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হবে। সেখানে লকডাউন কঠোরভাবে পালন করা হয়েছে কিনা, তা খুঁটিয়ে দেখা হবে বলে জানান মোদী। এছাড়াও একাধিক শর্ত পূরণ করতে হবে। তবেই সেই এলাকায় জরুরি কাজের ক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া হবে।

কী কী সেই শর্ত? মোদী জানান, কতটা কঠোরভাবে প্রতিটি রাজ্য লকডাউন পালন করেছে, তা খতিয়ে দেখা হবে। সংশ্লিষ্ট এলাকা করোনা থেকে কতটা নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে পেরেছে, তা বিবেচনা করা হবে। মোদীর কথায়, 'যে এলাকাগুলি এই অ্যাসিড পরীক্ষায় পাশ করবে, যেখানে হটস্পট থাকবে না, যে এলাকাগুলির হটস্পটে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা কম, সেখানে আগামী ২০ এপ্রিল থেকে কিছু জরুরি কাজ শুরুর অনুমতি দেওয়া হবে।'

আরও পড়ুন : রাস্তায় পড়ে থাকা দুধ খাচ্ছে কুকুর, বাটিতে তুলে রাখছেন ব্যক্তি, ভাইরাল ভিডিয়ো

তবে লকডাউন শিথিল করলেই সব বিধিনিষেধ ফুৎকারে উড়িয়ে দেওয়ার প্রবণতা রুখতে কড়া হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, যদি কোনও এলাকায় আবার করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া যায়, তাহলে সেখানে কঠোরভাবে লকডাউন লাগু হবে। মোদীর কথায়, 'সেজন্য নিজে কোনও অবিবেচকের মতো কাজ করবেন না। অন্যকে করতেও দেবেন না। এনিয়ে আগামীকাল বিস্তারিত নির্দেশিকা জারি করা হবে।'

বন্ধ করুন