হায়দরাবাদ হাউসে মোদী-ট্রাম্প (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
হায়দরাবাদ হাউসে মোদী-ট্রাম্প (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

Covid-19 Updates: করোনা যুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনায় ৩০ লাখ ডলার অনুদান আমেরিকার

  • গত ২০ বছরে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে ভারতকে ১.৪ বিলিয়ন ডলার ও সবমিলিয়ে ২.৮ বিলিয়ন ডলার দিয়েছে মার্কিন প্রশাসন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ভারতকে ৩০ লাখ ডলার অনুদান দিচ্ছে আমেরিকা। পার্টনারশিপস ফর অ্যাফোর্ডেবল হেলথকেয়ার অ্যাকসেস অ্য়ান্ড ও লংজিভিটি (পাহাল) প্রকল্পে এই অনুদান দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন : সোনার দামে ফের উত্থান, আস্থা ফিরছে বিনিয়োগকারীদের

করোনা মহামারীর মোকাবিলায় ইতিমধ্যে ভারতকে ৫৯ লাখ ডলার অনুদান দিয়েছে ইউএস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ইউএসএআইডি)। এই অনুদান ভারতকে করোনা সংক্রমণের গতি কমাতে, মানুষের কাছে গুরুত্বপূর্ণ জনস্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্য পৌঁছাতে, করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া ও নজরদারির প্রক্রিয়াকে আরও শক্তিশালী করতে সাহায্য করবে।

আরও পড়ুন : ইন্টারেনেট ব্যবহারের অধিকার মৌলিক অধিকার নয়, সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্র

মার্কিন দূতাবাসের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, গত ১৬ এপ্রিল আমেরিকার প্রশাসন জানিয়েছিল, ইউএসএআইডি-র মাধ্যমে ৩০ লাখ ডলার অনুদান দেওয়া হবে। সেই অর্থ ভারত সরকারের সঙ্গে যুগ্মভাবে পাহাল প্রকল্পে ব্যবহার করা হবে। যা আইপিই গ্লোবালের আর্থিক প্ল্যাটফর্ম।

আরও পড়ুন : Lockdown 2.0: লকডাউনের পরে নিয়ন্ত্রিতভাবে শুরু হবে উড়ান পরিষেবা, থাকবেন ৩০% যাত্রী

পাহাল প্রকল্পের মাধ্যমে জাতীয় স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে আর্থিক কেন্দ্র স্থাপনে সহায়তা করবে ইউএসএআইডি। যা প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনায় (পিএম-জেএওয়াই) নথিভুক্ত ২০,০০০-এর বেশি স্বাস্থ্যকেন্দ্রকে সাহায্যের জন্য বেসরকারি ক্ষেত্র থেকে সম্পদ জোগাড় করবে।

আরও পড়ুন : ইচ্ছাকৃত ঋণখেলাপিদের থেকে উদ্ধার প্রায় ১৮,৩৩৩ কোটি টাকা, জানালেন সীতারামন

একটি বিবৃতিতে আমেরিকার রাষ্ট্রদূত কেনিথ জাস্টার বলেন, 'Covid-১৯ মোকাবিলায় ভারতের ক্রমাগত প্রচেষ্টাকে সাহায্যের জন্য এই বাড়তি অনুদান হল আমেরিকা ও ভারতের মধ্যে দৃঢ় ও স্থায়ী সুসম্পর্কের আরও একটি উদাহরণ।'

আরও পড়ুন : মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা দশ হাজার ছুঁইছুঁই, দেশে কমছে কোভিড হটস্পট

জনস্বাস্থ্য বিষয়ে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ দ্বিপাক্ষিক অনুদান প্রদানকারী হল আমেরিকা। গত ২০ বছরে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে ভারতকে ১.৪ বিলিয়ন ডলার ও সবমিলিয়ে ২.৮ বিলিয়ন ডলার দিয়েছে মার্কিন প্রশাসন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'যেহেতু কোনও একটি জায়গার সংক্রামক রোগ সব জায়গায় বিপদ হয়ে উঠতে পারে, সেজন্য করোনা মোকাবিলায় সারা বিশ্বের প্রচেষ্টায় অন্যান্য অনুদানকারীদের সাহায্যের আহ্বান জানাচ্ছে আমেরিকা।'

বন্ধ করুন