বাড়ি > ঘরে বাইরে > Covid-19 Vaccine Updates: 'ভারতে করোনা টিকার কাজ ভালো চলছে', প্রতি ১০০ জন করোনা আক্রান্তে সুস্থ ৭৪
নয়াদিল্লিতে এক মহিলার লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
নয়াদিল্লিতে এক মহিলার লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

Covid-19 Vaccine Updates: 'ভারতে করোনা টিকার কাজ ভালো চলছে', প্রতি ১০০ জন করোনা আক্রান্তে সুস্থ ৭৪

  • প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলির থেকে টিকার সম্ভাব্য দাম জানতে চাওয়া হয়েছে।

বুধবার দৈনিক সুস্থতার নিরিখে নয়া রেকর্ড তৈরি তো হলই, একইসঙ্গে ভারতে করোনাভাইরাসকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠার মানুষের সংখ্যা ২০ লাখ ছাড়িয়ে গেল। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭.৬৭ লাখের মতো।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বুধবার সকাল পর্যন্ত ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২,৭৬৭,২৭৪। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৪,৫৩১ জন নয়া করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছে। তার ফলে গত রবিবার থেকে পরপর তিনদিন যে নয়া আক্রান্তের গ্রাফ নিম্নগামী হয়েছিল, বুধবার তা আবার উর্ধ্বমুখী হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল আটটা থেকে বুধবার সকাল আটটার মধ্যে মৃতের সংখ্যাও সামান্য বেড়েছে। ওই সময়ের মধ্যে ১,০৯২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সবমিলিয়ে করোনায় প্রাণহানি হয়েছে ৫২,৮৮৯ জনের।

তারইমধ্যে বুধবার দৈনিক নয়া সুস্থতার নিরিখে রেকর্ড তৈরি হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০,০৯২ জন সেরে উঠেছেন। তার ফলে ভারতে করোনাকে হারিয়ে দিয়েছেন মোট ২,০৩৭,৮৭১ জন। অর্থাৎ সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৩.৬৪ শতাংশ।

সেই আশার আলোর মধ্যে করোনার টিকা সংক্রান্ত কেন্দ্রের বিশেষজ্ঞ কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, ভারতে করোনার সম্ভাব্য টিকার ট্রায়াল ভালোভাবেই এগোচ্ছে। সেই বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রধান তথা নীতি আয়োগের সদস্য ভি কে পাল বলেন, 'আমরা সব ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেটগুলির পর্যালোচনা করেছি। সেগুলি ভালোমতোই এগোচ্ছে এবং আশাব্যঞ্জকভাবে সেগুলির কাজ চলছে।' কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, ভারতের একটি টিকার তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল চলছে। বাকি দুটি প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ে আছে। 

কমিটির প্রধান জানিয়েছেন, কীভাবে টিকা প্রয়োগ করা হবে এবং তার জোগানের বিষয়টি নিয়ে পুরো নকশা তৈরি করা আছে। প্রয়োজনানুসারে টিকার বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে তৃণমূলস্তরে টিকা প্রয়োগের বিস্তারিত পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে। 

পাশাপাশি প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলির থেকে টিকার সম্ভাব্য দাম জানতে চাওয়া হয়েছে। তা নিয়ে বৈঠকও করেছে কেন্দ্র। পাল বলেন, ‘আমরা টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থাদের থেকে জানতে চেয়েছি, সম্ভাব্য দাম কত হবে। দামের বিষয় অত্যন্ত জটিল। কারণ কয়েকটি টিকা প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। দাম মোটামুটি কত হতে পারে, তা নিয়ে আমাদের কিছুটা ধারণা আছে। কিন্তু আমরা যত এগোব সেই তথ্য তত পরিবর্তিত হবে।’ একইসঙ্গে উৎপাদন ক্ষমতা নিয়ে টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলিকে তথ্য দিতে বলেছে কেন্দ্র। ভবিষ্যতে তা বাড়বে কিনা, ভবিষ্যতে কী হবে, তা নিয়েও যাবতীয় তথ্য জানানোর কথা বলা হয়েছে।

বন্ধ করুন