বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ১৫ গুণ শক্তিশালী অন্ধ্র স্ট্রেন! নয়া রূপে ভারতের উপর করোনা হানা
করোনার নতুন স্ট্রেনে জর্জরিত অন্ধ্রপ্রদেশ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই)
করোনার নতুন স্ট্রেনে জর্জরিত অন্ধ্রপ্রদেশ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই)

আতঙ্ক ছড়াচ্ছে ১৫ গুণ শক্তিশালী অন্ধ্র স্ট্রেন! নয়া রূপে ভারতের উপর করোনা হানা

  • জানা গিয়েছে সেলুলার অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজির গবেষকরা করোনার নতুন N440K ভ্যারিয়েন্ট আবিষ্কার করেছেন।

করোনার নয়া রূপের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা। জানা গিয়েছে সেলুলার অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজির গবেষকরা করোনার নতুন N440K ভ্যারিয়েন্ট আবিষ্কার করেছেন। নতুন এই স্ট্রেনকে এপি (অন্ধ্রপ্রদেশ) স্ট্রেন বলে চিহ্নিত করা হচ্ছে। গবেষকদের মত, নতুন এই স্ট্রেন করোনার অন্যান্য স্ট্রেনের থেকে ১৫ গুণ বেশি শক্তিশালী। ভারতের B1.617 এবং B1.618 স্ট্রেনের থেকেও বেশি শক্তিশালী এই নতুন করোনা স্ট্রেন। এই আবহে বিশাখাপট্টনমে এই করোনা স্ট্রেন সবাইকে আতঙ্কে রেখেছে।

এই নয়া স্ট্রেন প্রথম মিলেছিল অন্ধ্রপ্রদেশের কুর্নুলে। এই বিষয়ে জেলা কলেক্টর ভি বিজয় চাঁদ বলেন, 'আমরা এখনও খোঁজ চালাচ্ছি যে কোন স্ট্রেন এই সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। একটি নমুনা সেলুলার অ্যান্ড মলিকিউলার বায়োলজিতে পাঠানো হয়েছে। তবে একটা জিনিস স্পষ্ট যে বিশাখাপট্টনমে গত বছরে যে করোনা স্ট্রেন ছিল, তার থেকে এই নতুনস্ট্রেন আলাদা।' রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের শীর্ষ স্থানীয় চিকিত্সকদের তথ্যের ভিত্তিতেই এই কথা বলেন কলেক্টর ভি বিজয় চাঁদ।

এদিকে সে জেলার কোভিড সংক্রান্ত বিশেষ আধিকারিক পিভি সুধাকর বলেন, গবেষকরা জানতে পেরেছেন যে করোনার এই স্ট্রেনের ইনকুবেশন পিরিয়ড অনেক কম। এবং খুব দ্রুত এই রোগ ছড়িয়ে পড়ছে। আগে দেখা যেত যে কোভিড আক্রান্ত রোগী হাইপক্সিয়া পর্যায়ে পৌঁছতেন দুই সপ্তাহ পরে। তবে নতুন এই স্ট্রেনের জেরে তিন-চার দিনেই হাইপক্সিয়া পর্যায়ে পৌঁছে যাচ্ছে করোনা আক্রান্তরা।

 

বন্ধ করুন