বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Covid-19 Vaccine Updates: 'দুই অন্যতম সুরক্ষিত টিকার অনুমোদন', দাবি কেন্দ্রের, কোভ্যাক্সিন ব্যবহারে সায় নয় ছত্তিশগড়ের
ছত্তিশগড়ে আপাতত শুধুমাত্র সেরামের কোভিশিল্ড পাঠানো হচ্ছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
ছত্তিশগড়ে আপাতত শুধুমাত্র সেরামের কোভিশিল্ড পাঠানো হচ্ছে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

Covid-19 Vaccine Updates: 'দুই অন্যতম সুরক্ষিত টিকার অনুমোদন', দাবি কেন্দ্রের, কোভ্যাক্সিন ব্যবহারে সায় নয় ছত্তিশগড়ের

ছত্তিশগড়ে আপাতত শুধুমাত্র সেরামের কোভিশিল্ড পাঠানো হচ্ছে।

কোভ্যাক্সিন প্রদানের বিষয়ে আশ্বস্ত নয় ছত্তিশগড়। কংগ্রেস-শাসিত রাজ্যের বক্তব্য, তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল ছাড়াই ভারত বায়োটেকের করোনাভাইরাস ব্যবহার করা হবে না। তারইমধ্যে কেন্দ্রের তরফে দাবি করা হল, অন্যতম সুরক্ষিত দুটি করোনাভাইরাস টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

চলতি মাসের গোড়ায় জরুরি ভিত্তিতে সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া (এসআইআই) এবং ভারত বায়োটেককে করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছেন ডিসিজিআই ভি জে সোমানি। তারপর থেকে তথ্য বিতর্কে জর্জরিত হয়ে আছে কোভ্যাক্সিন। তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের পর্যাপ্ত তথ্য ছাড়াই অনুমোদন দেওয়া হওয়ায় প্রশ্ন তোলেন বিশেষজ্ঞদের একাংশ। কেন্দ্রের আশ্বাস সত্ত্বেও সেই টিকা ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপত্তি জানিয়েছে ছত্তিশগড়। 

ছত্তিশগড়ের স্বাস্থ্যমন্ত্রী টি এস সিং দেও বলেন, 'একটা সাধারণ কারণেই আমরা ছত্তিশগড়ে কোভ্যাক্সিন ব্যবহারের পক্ষে নই। তা হল, চূড়ান্ত প্রমাণ এবং সাফল্যের সঙ্গে নির্দিষ্ট পরীক্ষা সম্পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত কোনও টিকা ব্যবহার করা সুরক্ষিত নয়।' তিনি আরও বলেন, 'ভারতীয় হিসেবে ভারত বায়োটেকের অগ্রসরে গর্বিত আমরা এবং গবেষক ও বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানাতে চাই। একটাই বিষয় হল যে কখন (টিকাকরণ) প্রক্রিয়া শুরু হবে। আমার মতে, এখনই বৃহদাকারে (কোভ্যাক্সিনের) ব্যবহারের পথে হাঁটা উচিত নয় এবং তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করা উচিত।'

সেই অনড় অবস্থানের মধ্যে সোমবার কংগ্রেস-শাসিত রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ছত্তিশগড়ে আপাতত শুধুমাত্র সেরামের কোভিশিল্ড পাঠানো হচ্ছে। পরদিনই আবার সাংবাদিক বৈঠকে নীতি আয়োগের সদস্য (স্বাস্থ্য) ভিকে পাল জানান, অনুমোদনপ্রান্ত দুটি করোনা টিকা যে পুরোপুরি সুরক্ষিত, সে বিষয়ে সন্দেহের কোনও অবকাশ নেই। তিনি বলেন, ‘এই দুটি টিকা অন্যতম সুরক্ষিত টিকা।’ একইসঙ্গে যোগ করেন, দুই টিকারই পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া একেবারে কম।

বন্ধ করুন