বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ফোনে মশগুল, মহিলাকে ২ বার করোনা টিকা দিলেন নার্স!

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে টিকা (Coronavirus Vaccine) নিতে গিয়েছিলেন এক মহিলা। কিন্তু হিতে বিপরীত হল। ফোনে মশগুল হয়ে মহিলাকে পর পর দু'বার টিকা দিয়ে ফেললেন নার্স। এখন হাতে বেজায় যন্ত্রণা নিয়ে নাস্তানুবুদ হচ্ছেন ওই মহিলা।

ঘটনাটি কানপুরের (Kanpur) দেহাতে। সেখানে মন্ডোলি প্রাইমারি হেলথ সেন্টারে করোনা টিকা নিতে যান কমলেশ দেবী নামের এক মহিলা। মহিলার অভিযোগ, শুরু থেকে ফোনে গল্পেই ব্যস্ত ছিলেন সেখানকার নার্স অর্চনা।

ফোনে গল্প করতে করতেই তাঁকে প্রথমে একটি ইঞ্জেকশান দেন নার্স। এরপর নিয়ম মতো চেয়ারে বসে ছিলেন ওই মহিলা। তাঁর অভিযোগ, এরপর হঠাৎ এসে আরও একবার তাঁকে ইঞ্জেকশন দিয়ে দেন না।

প্রথমে দু'বার ইঞ্জেকশনের ব্যাপারটা বুঝতে পারেননি ওই মহিলা। তবে একইদিনে দু'বার ইঞ্জেকশন দেওয়ায় তাঁর খটকা হয়। বেশ যন্ত্রণা শুরু হয়। হাতও ফুলে যায়। সঙ্গে সঙ্গে নার্সের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চান কমলেশ দেবী। তখনও নার্স ফোনেই ব্যস্ত।

পুরো ব্যাপারটা শুনে আকাশ থেকে পড়েন নার্স। ফোনে গল্প করতে করতে যে একই মহিলাকে দু'বার ইঞ্জেকশন দিয়েছেন, তা তিনি খেয়ালই করেননি। কমলেশ দেবীর অভিযোগ, ক্ষমা চাওয়ার বদলে উলটে রেগে যান নার্স। কেন তিনি আগেই বলেননি জানতে চেয়ে তাঁর উপর নার্স চোটপাট শুরু করেন, এমনই দাবি তাঁর।

অন্যদিকে এতবড় গাফিলতির অভিযোগ অস্বীকার করেছে কানপুরের স্বাস্থ্য বিভাগ। ভুল করে দু'বার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়ে গিয়েছে বলে দায় এড়িয়ে গিয়েছেন অভিযুক্ত নার্সও।

বন্ধ করুন