বাড়ি > ঘরে বাইরে > বাজি ঠাসা খাবার খেয়ে হিমাচলে চোয়াল উড়ল গর্ভবতী গরুর, গ্রেফতার ১
বাজি ঠাসা খাবার খাইয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিয়োগ গরুর মালিকের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
বাজি ঠাসা খাবার খাইয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিয়োগ গরুর মালিকের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

বাজি ঠাসা খাবার খেয়ে হিমাচলে চোয়াল উড়ল গর্ভবতী গরুর, গ্রেফতার ১

  • কেরালার পর হিমাচল প্রদেশ। আরও এক নৃশংস ঘটনার সাক্ষী দেশ।

কেরালার নৃশংস ঘটনায় দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। তারইমধ্যে হিমাচল প্রদেশে একইভাবে একটি গর্ভবতী গরুকে বাজি ঠাসা ময়দা খাওয়ানোর ঘটনা সামনে এল। সেই বাজি ঠাসা খাবার খেয়ে গরুটির চোয়াল উড়ে গিয়েছে।

গত ২৬ মে বিলাসপুর জেলার ঝান্ডুতা এলাকায় সেই ঘটনাটি ঘটলেও শনিবার তা সামনে আসে। আহত গরুর একটি ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন মালিক গুরদয়াল সিং। তিনি অভিযোগ করেন, মাঠে চরার সময় প্রতিবেশী নন্দলাল গরুটিকে বাজি ঠাসা ময়দা খাইয়ে দিয়েছেন। মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিয়ো।

বিলাসপুরের পুলিশ সুপার দেবাকর শর্মা জানান, গরুটিকে শক্তিশালী বিস্ফোরক (আলু বোমা) খাইয়ে দেওয়া হয়েছিল। প্রাণীদের উপর নিষ্ঠুরতা বিরোধী আইনের ২৮৬ ধারার মামলা রুজু হয়েছে। পরে শনিবার সন্ধ্যায় নন্দলালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অনেকের দাবি, এরকম নৃশংসভাবেই বন্য শুয়োর এবং বন্যপ্রাণীদের হত্যা করে শিকারিরা। স্থানীয়দের বক্তব্য, বন্যপ্রাণীদের থেকে শস্য বাঁচাতে হিমাচল প্রদেশের কৃষকরাও একই কায়দায় খাবারের মধ্যে বাজি পুরে রাখেন।

এদিকে, কেরালার ঘটনায় রীতিমতো সরব হলেও হিমাচল প্রদেশের ঘটনায় মুখে টুঁ শব্দ না করায় বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন পরিবেশকর্মী থেকে শুরু করে নেটিজেনরা। তাঁদের বক্তব্য, হাতি মৃত্যু নিয়ে তো প্রাক্তন কেন্দ্রীয় পরিবেশমন্ত্রী মেনকা গান্ধী একাধিক অভিযোগ করেছিলেন। তাহলে বিজেপি শাসিত রাজ্যে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তিতে তিনি চুপ কেন? তবে কেরালার ঘটনায় আইনি জটে পড়েছেন মেনকা।ঘটনার পর সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেছিলেন, ঘটনাটি মল্লপুরমে হয়েছে। কিন্তু আদতে সেটি পলক্কড়ের ঘটনা। মল্লপুরমের নামে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক আইনজীবী।

বন্ধ করুন