বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জওয়ানদের জন্য নেই বুলেটপ্রুফ গাড়ি, রাহুলের ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করবে সিআরপিএফ
রাহুল গান্ধীর দাবি, দেশের সুরক্ষায় নিয়োজিত বাহিনীকে বুলেটপ্রুফ নয় এমন গাড়িতে যাতায়াত করতে বাধ্য করছে কেন্দ্রীয় সরকার।
রাহুল গান্ধীর দাবি, দেশের সুরক্ষায় নিয়োজিত বাহিনীকে বুলেটপ্রুফ নয় এমন গাড়িতে যাতায়াত করতে বাধ্য করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

জওয়ানদের জন্য নেই বুলেটপ্রুফ গাড়ি, রাহুলের ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করবে সিআরপিএফ

  • বাহিনীর ডিআজি-র দাবি, সিআরপিএফ-এর কাছে যথেষ্ট পরিমাণে সুরক্ষিত বাহন রয়েছে, যা বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়।

বুলেটপ্রুফ গাড়ি ছাড়াই নাশকতা অধ্যুষিত অঞ্চলে পাঠানো হচ্ছে সিআরপিএফ জওয়ানদের। ভিডিয়ো কফুটেজের ভিত্তিতে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর দাবি খারিজ করে ভিডিয়োর বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলল কেন্দ্রীয় নিরাপত্তাবাহিনী।

শনিবার সিআরপিএফ-এর তরফে ডিআইজি মোজেস দিনাকরণ জানান, ‘সিআরপিএফ ওই ভিডিয়োর বৈধতা সম্পর্কে তদন্ত করে দেখছে। সিআরপিএফ-এর কাছে যথেষ্ট পরিমাণে সুরক্ষিত বাহন রয়েছে, যা বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়।’

তার আগে প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী দাবি করেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য ৮,৪০০ কোটি টাকায় বিমান কিনলেও দেশের সুরক্ষায় নিয়োজিত বাহিনীকে বুলেটপ্রুফ নয় এমন গাড়িতে যাতায়াত করতে বাধ্য করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

টুইটারে বিতর্কিত ভিডিয়ো ফুটেজ শেয়ার করে রাহুল প্রশ্ন তোলেন, ‘আমাদের জওয়ানদের ’বুলেটপ্রুফ নয় এমন ট্রাকে যাতায়াত করে শহিদ হতে হয় আর প্রধানমন্ত্রীর জন্য ৮,৪০০ কোটি টাকায় বায়ুযান কেনা হয়। এই কি সুবিচার?’

রাহুলের পোস্ট করা ভিডিয়োতে দুই সিআরপিএফ জওয়ানের কথোপকথনে জানা গিয়েছে, তাঁদের নন-বুলেটপ্রুফ যানে যাতায়াত করতে হলেও বাহিনীর উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের জন্য বুলেটপ্রুফ যান বহাল হয়। জওয়ানরা অভিযোগ জানান, এ ভাবে ঝুঁকির মুখে ঠেলে দিয়ে তাঁদের ও তাঁদের পরিবারের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও উপ-রাষ্ট্রপতিদের মতো ভিভিাইপিদের জন্য দুটি বিশেষ বিমান কিনেছে কেন্দ্র। যদিও নরেন্দ্র মোদী সরকারের দাবি, ইউপিএ আমলেই ওই বিমানগুলি সংগ্রহের বিষয়ে পদক্ষেপ করা হয়েছিল, যা বাস্তবায়িত হয়েছে এনডিএ সরকারের শাসনকালে।

 

বন্ধ করুন