টাকার নোটের সঙ্গে থাকছে হুমকি-চিঠি।
টাকার নোটের সঙ্গে থাকছে হুমকি-চিঠি।

ঘরের দরজা খুললেই নোটের তাড়া, সঙ্গের চিরকুটে করোনার হুমকি!

  • শহরের কমপক্ষে তিনটি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে। হাতের লেখা দেখে বোঝা যাচ্ছে, চিরকূটগুলির লেখক একজনই।

লকডাউন আক্রান্ত বিহারে Covid-19 সংক্রমণ নিয়ে ছড়াল নতুন ভীতি। বাড়ির বাইরে হঠাৎ আবিষ্কৃত হল টাকার নোট, সঙ্গে হুমকি-চিঠি।

হিন্দুস্তান টাইমস-এর হিন্দি সংস্করণ ‘লাইভ হিন্দুস্তান’ প্রকাশিত খবরে জানা গিয়েছে, বিহারের এক ছোট শহরে বাড়ির দরজার বাইরে পড়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে বেওয়ারিশ নোটের তাড়া। বেশির ভাগ নোটই ২০, ৫০ ও ১০০ টাকার। নোটের সঙ্গে থাকা চিরকুটে লেখা থাকছে, ‘আমি করোনাকে নিয়ে এসেছি। এই নোটগুলি গ্রহণ করুন, না হলে সবাইকে উত্যক্ত করব।’

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, শহরের কমপক্ষে তিনটি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে। হাতের লেখা দেখে বোঝা যাচ্ছে, চিরকূটগুলির লেখক একজনই।

বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছেন ওই তিন বাড়ির বাসিন্দারা। ঘটনার তদন্তে নেমেছেন গোয়েন্দারা।

দেশজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে প্রশাসনের তরফে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য বার বার আবেদন জানানো হচ্ছে। তার জেরে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় জিনিসপত্র ছোঁয়ার বিষয়ে মানুষ ইদানীং সাবধানী হয়ে উঠেছেন।

কাগজের নোট থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে কি না জানতে, গত মার্চ মাসে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে চিঠি লেখেন নিখিল ভারত ব্যবসায়ী সংগঠন (CAIT) সদস্যরা।

মুদ্রার নোট থেকে করোনা সংক্রমণ ঘটছে কি না, তাই নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও বিজ্ঞানভিত্তিক প্রমাণ পাওয়া যায়নি। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তরফেও এই বিষয়ে কোনও বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি।

বন্ধ করুন