বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কটকের অর্থলগ্নি সংস্থায় ডাকাতি, লুঠ নগদ ৪ লাখ ও ১২ কোটি টাকার সোনার গয়না
কটকের অর্থলগ্নি সংস্থা আইআইএফএল ফাইন্যান্স-এর শাখা থেকে নগদ ৪ লাখ টাকা ও ১২ কোটি টাকা মূল্যের মোট ৩৯.৫ কেজি সোনার গয়না লুঠ করল ডাকাতদল।
কটকের অর্থলগ্নি সংস্থা আইআইএফএল ফাইন্যান্স-এর শাখা থেকে নগদ ৪ লাখ টাকা ও ১২ কোটি টাকা মূল্যের মোট ৩৯.৫ কেজি সোনার গয়না লুঠ করল ডাকাতদল।

কটকের অর্থলগ্নি সংস্থায় ডাকাতি, লুঠ নগদ ৪ লাখ ও ১২ কোটি টাকার সোনার গয়না

  • শাখার ম্যানেজার ও কর্মীদের শৌচাগারে বন্ধ করে চাবি ছিনিয়ে নিয়ে অবাধে লকার খুলে নগদ টাকা ও গয়না লুঠ করা হয়।

কটকের অর্থলগ্নি সংস্থা থেকে নগদ ৪ লাখ টাকা ও ১২ কোটি টাকা মূল্যের মোট ৩৯.৫ কেজি সোনার গয়না লুঠ করল ডাকাতদল। অভিযোগ নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ আইআইএফএল ফাইন্যান্স সংস্থার কর্মীরা। 

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯.৪০ নাগাদ আইআইএফএল-এর নয়াসড়ক শাখা খোলার কিছু পরে হেলমেট ও মুখোশ পরে হানা দেয় চার সশস্ত্র দুষ্কৃতী। 

একমাত্র নিরাপত্তারক্ষীকে বন্দুক দেখিয়ে হুমকি দেয় তারা। এর পরেই হিন্দি ও ওড়িয়া ভাষী ডাকাতরা শাখার ম্যানেজার ও কর্মীদের ঘিরে ফেলে শৌচাগারে ঢুকিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। চাবি ছিনিয়ে নিয়ে তারা অবাধে লকার খুলে নগদ টাকা ও গয়না লুঠ করতে থাকে। 

শাখা ম্যানেজারের দাবি, মাত্র ১০ মিনিটে লুঠপাট শেষ করে চম্পট দেয় ডাকাতরা। লুঠ হয়ে যাওয়া ওই সমস্ত বন্ধক রাখা গয়না সংস্থার হাজার হাজার ঋণ গ্রহীতার, জানিয়েছেন কর্মীরা। 

কটকের সহকারি পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন, ডাকাতদের খোঁজে সাতটি বিশেষ দল গঠন করা হয়েছে। শহরে প্রবেশ ও প্রস্থানের সমস্ত পথ সিল করে তল্লাশি অভিযানে নেমেছে পুলিশ। অভিযানে সাহায্য করতে সংলগ্ন জগৎসিংহপুর, জয়পুর, ঢেনকানল ও কেন্দ্রপাড়া জেলার পুলিশকে সতর্ক করা হয়েছে। 

পুলিশ কমিশনার সুধাংশু ষড়ঙ্গী জানিয়েছেন, কোটি কোটি টাকা নগদ ও সোনার গয়না নিয়ে ব্যবসা করলেও ব্যাঙ্ক ও অন্যান্য অর্থলগ্নি সংস্থার মতো সমস্ত নিরাপত্তা বিধি মেনে চলেনি আইআইএফএল। 

তাঁর দাবি, ‘শাখার সিসিটিভি ক্যামেরা অচল ছিল। অ্যালার্ম ব্যবস্থাতেও সমস্যা রয়েছে। নিরাপত্তারক্ষীর কাছে কোনও অস্ত্র ছিল না। বাবা কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় স্থায়ী নিরাপত্তারক্ষী ছুটিতে রয়েছেন। বার বার পরামর্শ দেওয়া সত্ত্বেও আইআইএফএল কোনও নিরাপত্তা বিধিই মেনে চলেনি।’

বন্ধ করুন