বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Kim Jong Un: প্রথমবার মেয়েকে প্রকাশ্যে আনলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন

Kim Jong Un: প্রথমবার মেয়েকে প্রকাশ্যে আনলেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন

মেয়ের সঙ্গে কিম জং উন। 

শুক্রবার দেশের গণমাধ্যমে যে ছবি প্রকাশ করা হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, কিম তাঁর মেয়ের হাত ধরে যেখানে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তার পেছনে রয়েছে পরমাণু অস্ত্রবাহী হোয়াসং সিরিজের ক্ষেপণাস্ত্র। শুক্রবার জাপানের উপকূলে এই ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বরাবরই গোপনীয়তা বজায় রাখতে পছন্দ করেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। তবে সেই গোপনীয়তাকে দূরে ঠেলে প্রথমবার মেয়েকে প্রকাশ্যে আনলেন এই একনায়ককে। গতকাল শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএন-এর একটি প্রতিবেদনে কিমের মেয়ের ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে মেয়ের হাত ধরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন কিম জং উন। এমন ছবি প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

শুক্রবার দেশের গণমাধ্যমে যে ছবি প্রকাশ করা হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, কিম তার মেয়ের হাত ধরে যেখানে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তাঁর পেছনে রয়েছে পরমাণু অস্ত্রবাহী হোয়াসং সিরিজের ক্ষেপণাস্ত্র। শুক্রবার জাপানের উপকূলে এই ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের তত্ত্বাবধানের সময় কিমের সঙ্গে তাঁর মেয়েকে দেখা গিয়েছিল। যদিও কিমের মেয়ের নাম প্রকাশ্যে আনা হয়নি। কিমের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে খুব বেশি তথ্য জানা যায় না। গতকাল কিমের সঙ্গে তাঁর যে কন্যা ছিলেন তাঁকে আগে কোনওদিন প্রকাশ্যে আনা হয়নি।

 যদিও প্রাক্তন বাস্কেটবল তারকা ডেনিস রডম্যান ২০১৩ সালে দাবি করেছিলেন, কিমের একটি সন্তান রয়েছে তার নাম ‘জু অ্যায়’। তিনি আরও দাবি জানিয়েছিলেন, কিম একজন ভালো বাবা। তিনি তাঁর পরিবারের সঙ্গেও সময় কাটিয়েছেনম পাশাপাশি কিমের স্ত্রী রি সোল জুর সঙ্গে কথাও বলেছিলেন বলে জানিয়েছিলেন ওই বাস্কেটবল তারকা।

২০১২ সালে রিয়ের সঙ্গে কিমের বিয়ের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। যদিও দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দাদের ধারণা কিমের বিয়ে হয়েছিল তারও তিন বছর আগে। ২০১৮ সালে রি’কে ‘সম্মানিত ফার্স্ট লেডি’ উপাধি দেওয়া হয়। দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দাদের আরও অনুমান কিমের তিন সন্তান রয়েছে। অন্যদিকে, ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ প্রসঙ্গে কিম ঘোষণা করেছেন, ‘উত্তর কোরিয়ায় কেউ হামলা চালালে তার জবাব দিতে প্রস্তুত রয়েছি আমরা।’

বন্ধ করুন