বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ব্যাগে পুরে ফেলা হয়েছিল বৃদ্ধের দেহ! মর্গে যেতেই নড়ে উঠলেন, চোখ খুললেন,তারপর…
চিনে কোভিডকে ঘিরে নতুন করে সতর্কতা শুরু হয়েছে।(REUTERS/Aly Song) (REUTERS)
চিনে কোভিডকে ঘিরে নতুন করে সতর্কতা শুরু হয়েছে।(REUTERS/Aly Song) (REUTERS)

ব্যাগে পুরে ফেলা হয়েছিল বৃদ্ধের দেহ! মর্গে যেতেই নড়ে উঠলেন, চোখ খুললেন,তারপর…

  • একে চিনের কোভিডের আতঙ্ক। তার মধ্যে উদ্বেগের এই ঘটনা। এই ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি দেওয়ার জন্য তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  প্রশ্ন উঠেছে তিনি ওই চেনটানা ব্যাগে দমবন্ধ হয়েই তো মারা যেতে পারতেন?

এমনটাও হয়! চিনের সাংহাইতে এক বৃদ্ধ ব্যক্তিকে মৃত মনে করে মর্গে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আর সেই মর্গেই দেখা গেল তিনি দিব্যি বেঁচে রয়েছেন। শ্বাস প্রশ্বাস নিচ্ছেন। কাদের গাফিলতিতে এই কাণ্ড হল তা খতিয়ে দেখতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এদিকে চিনের সোশ্যাল মিডিয়ায় এনিয়ে একটি ভিডিয়ো সামনে এসেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে রবিবার সাংহাইয়ের একটি হাসপাতালের বাইরে দুজন মর্গের কর্মী একটি হলুদ রঙের দেহ বহনকারী ব্যাগ নিয়ে রয়েছেন। এনিয়ে সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টে খবরও প্রকাশিত হয়েছে সোমবার।

এদিকে সেই ব্যক্তি নানা সুরক্ষাযুক্ত পোশাক পরে রয়েছেন। তিনি ব্যাগের চেনটি খুলে বলেন, এই বৃদ্ধ ব্যক্তি বেঁচে রয়েছেন। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টে এমনই খবর বেরিয়েছে। এদিকে স্টাফরা পরে ওই ব্যাগটির চেন ফের আটকে দেন বলে খবর। এনিয়ে দুজন আপত্তিও করেছিলেন। পরে অবশ্য জানা যায় ওই বৃদ্ধকে হুইল চেয়ারে চাপিয়ে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে

এদিকে গোটা ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে বিভিন্ন মহল। এই ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি দেওয়ার জন্য তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে ওই বৃদ্ধ ব্যক্তিকে ফের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে তিনি ওই চেনটানা ব্যাগে দমবন্ধ হয়েই তো মারা যেতে পারতেন? তবে কোভিড আতঙ্কের মধ্যে এই ঘটনা জানাজানি হতেই সাংহাই শহরে ব্যাপক সাড়া পড়েছে।

 

বন্ধ করুন