ঘুষকাণ্ডে গ্রেফতার হওয়া আধিকারিকের কড়া শাস্তি দাবি করলেন মণীশ সিসোদিয়া।
ঘুষকাণ্ডে গ্রেফতার হওয়া আধিকারিকের কড়া শাস্তি দাবি করলেন মণীশ সিসোদিয়া।

ঘুষকাণ্ডে ধৃত নিজ দফতরের আমলার কড়া শাস্তি চান উপ-মুখ্যমন্ত্রী সিসোদিয়া

  • আধিকারিকের গ্রেফতারি প্রসঙ্গে সিসোদিয়ার বক্তব্য, 'ঘুষ নিলে সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করা উচিত। আমাদের সরকারে দুর্নীতির স্থান নেই।'

ঘুষের অভিযোগে গ্রেফতার নিজের দফতরে কর্মরত উচ্চপদস্থ আধিকারিকের কড়া শাস্তি দাবি করলেন আম আদমি সরকারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া।

দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের মাত্র দুই দিন আগে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে বৃহস্পতিবার দিল্লিতে গ্রেফতার হয়েছেন আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-মুখ্যমন্ত্রী সিসোদিয়ার দফতরে বহাল শীর্ষস্থানীয় প্রশাসনিক আধিকারিক গোপাল কৃষ্ণ মাধব।

গতকাল বিকেলে তাঁকে ফাঁদ পেতে জিএসটি সংক্রান্ত ২ লাখ টাকা ঘুষ কেলেঙ্কারি মামলায় হাতেনাতে গ্রেফতার করে সিবিআই।

এ দিন টুইটারে সিসোদিয়া জানিয়েছেন, ‘শুনলাম ঘুষ নিতে গিয়ে সিবিআই-এর হাতে ধরা পড়েছেন এক জিএসটি ইন্সপেক্টর। এই আধিকারিক আমার দফতরেও অফিসার অন স্পেশ্যাল ডিউটি হিসেবে বহাল ছিলেন। সিবিআই-এর উচিত ওঁকে কঠিনতম শাস্তি দেওয়া। গত পাঁচ বছরে আমি এমন দুর্নীতিগ্রস্ত বেশ কিছু আধিকারিককে ধরেছি।’

এ দিন সংবাদসংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাত্কারে সিসোদিয়া জানান, ‘গ্রেফতারির সময়কাল নিয়ে আমার কোনও বক্তব্য নেই। ঘুষ নিলে সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করা উচিত। আমাদের সরকারে দুর্নীতির স্থান নেই।’

জানা গিয়েচে, গ্রেফতার করার পরে জেরার জন্য মাধবকে নিজেদের প্রধান দফতরে নিয়ে গিয়েছে সিবিআই। এ সম্পর্েক বিস্তারিত তথ্য দিতে রাজি হয়নি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

দিল্লিতে আম আদমি পার্টি ক্ষমতা দখল করার পরে উপ-মুখ্যমন্ত্রী সিসোদিয়ার দফতরে মাধবকে বহাল করা হয় বলে জানা গিয়েছে।

বন্ধ করুন