বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Service charge order on restaurants: 'রেস্তোরাঁর বিলে পরিষেবা কর নয়' সংক্রান্ত নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিল্লি হাইকোর্টের
রেস্তোরাঁর খাবারের পরিষেবা কর নিয়ে আদালতের স্থগিতাদেশ। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

Service charge order on restaurants: 'রেস্তোরাঁর বিলে পরিষেবা কর নয়' সংক্রান্ত নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিল্লি হাইকোর্টের

অনেক সময় পরিষেবায় অসন্তুষ্ট হয়েও ক্রেতাকে এই কর দিতে হয়। এবার এই কর নিয়ে সেন্ট্রাল কনজিউমার প্রোটেকশন অথরিটির তরফে আসা নির্দেশে স্থগিতাদেশ জানাল দিল্লি হাইকোর্ট। পরবর্তী শুনানি ২৫ জুলাই।

রেস্তোরাঁগুলিতে পরিষেবা কর আর জোর করে নেওয়া যাবে না নির্দেশ দিয়েছিল সেন্ট্রাল কনজিউমার প্রোটেকশন অর্থরিটি। হোটেল বা রেস্তোরাঁতে খাবার বিলের মধ্যেই সরাসরি যোগ করা হত এই কর। ক্রেতা সেই কর দিতে ইচ্ছুক বা অনিচ্ছুক কিনা তা সম্পূর্ণ তাঁর ইচ্ছাধীন। অনেক সময় পরিষেবায় অসন্তুষ্ট হয়েও ক্রেতাকে এই কর দিতে হয়। যাতে তা জোর করে আদায় না হয়, তার জন্য আসে অথরিটির নির্দেশ। এবার সেই কর নিয়ে সেন্ট্রাল কনজিউমার প্রোটেকশন অথরিটির তরফে আসা নির্দেশে স্থগিতাদেশ জানাল দিল্লি হাইকোর্ট। পরবর্তী শুনানি ২৫ জুলাই।

এর আগে, সেন্ট্রাল কনজিউমার প্রোটেকশন অথরিটির তরফে এক নির্দেশে বলা হয়, রেস্তোরাঁগুলি এবার থেকে নিজে থেকে খাবারের বিলে পরিষেবা কর বা সার্ভিস ট্যাক্স জুড়ে দিতা পারবে না। এদিকে দিল্লি হাইকোর্ট সেই নির্দেশকে এদিন স্থগিত রেখেছে। তবে হাইকোর্ট জানিয়েছে, সমস্ত রেস্তোরাঁ ও খাবারের হোটেলকে তাদের মেনুতে লেভি চার্জ সঠিকভাবে জানাতে হবে। এই বিষয়ে ন্যাশনাল রেস্টুরেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়ার একটি বক্তব্যকে আদালত রেকর্ড করে রেখেছে। সেখানে ‘টেক অ্যাওয়ে’ বা বাড়ি পৌঁছে দেওয়া সংক্রান্ত খাবারে লেভি ধার্য হবে না বলেও সাবমিশনে জানানো হয়।

উল্লেখ্য, বহু আগেই রেস্তোরাঁয় পরিষেবা কর নিয়ে অথরিটির নির্দেশ এসেছিল। তবে, তা কার্যকর হচ্ছে না দেখে সদ্য কেন্দ্র পদক্ষেপ করেছে। কড়া অবস্থানে কেন্দ্র জানিয়েছে এই কর জোর করে নেওয়া যাবে না। কেন্দ্রীয় ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রকের তরফে এই বার্তা আসে। তারপরই দিল্লি হাইকোর্ট এক আবেদনের প্রেক্ষিতে এই নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন